প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ঈদের আগে পদ্মা সেতুতে বাইক চালুর ‘আশা নেই’

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঈদের আগে পদ্মা সেতুতে মোটরসাইকেল চালুর কোনো সম্ভাবনা দেখছেন না মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। গতকাল মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে এসে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে তিনি বলেন, পদ্মা সেতুতে কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন ক্যামেরা বসবে, স্পিডগান বসবে, এরপর হয়তো বাইকের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। তবে ঈদের আগে মনে হয় না, এটা হবে সম্ভব হবে।

উদ্বোধনের পর গত ২৬ জুন পদ্মা সেতু খুলে দেয়া হলে যানবাহনের ঢল নামে। সেই মিছিলে সংখ্যায় সবচেয়ে বেশি ছিল মোটরসাইকেল। ১০০ টাকা টোল দিয়ে সেতুতে উঠে বাইকারদের অনেকেই নিয়ম না মেনে হুল্লোড়ে মাতেন। সেদিন সন্ধ্যায় সেতুতে মোটরসাইকেলে চড়ে মোবাইলে ভিডিও করার সময় দুর্ঘটনায় পড়ে প্রাণ যায় দুই তরুণের।

ওই প্রেক্ষাপটে পরদিন ভোর থেকে সেতুতে মোটরসাইকেল ওঠা নিষিদ্ধ করে সেতু বিভাগ। এ বিভাগের সচিব মো. মনজুর হোসেন সেদিন বলেছিলেন, পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে এ নিষেধাজ্ঞা তোলার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

এরপর গত ২৮ জুন নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী সাংবাদিকদের প্রশ্নে বলেন, সেখানে এখন স্পিড গান, সিসি টিভি বসানো হবে। সেগুলো স্থাপনের পর পরবর্তী সিদ্ধান্ত। সিসি ক্যামেরায় নির্দিষ্ট স্থানের ভিডিও যেমন ধারণ করা যায়, তেমনি রাডার স্পিড গান যন্ত্রের মাধ্যমে চলন্ত গাড়ির গতি পরিমাপ করা যায়, যা বিভিন্ন দেশে সড়কে শৃঙ্খলা বজায়ে ব্যবহার হয়ে থাকে।