উচ্চশিক্ষায় গবেষণা হবে একটি থ্রাস্ট সেক্টর: ইউজিসি চেয়ারম্যান

নিজস্ব প্রতিবেদক: বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড. কাজী শহীদুল্লাহ বলেছেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে উচ্চশিক্ষার অন্যতম অনুষঙ্গ হলো গবেষণা। ১০টি গবেষণা কেন্দ্র থেকে বিশ্বমানের গবেষণা হচ্ছে জেনে আমি সত্যি আনন্দিত। উচ্চশিক্ষা খাতে আমরা গবেষণায় বেশ পিছিয়ে আছি। যতটা গবেষণা হওয়া উচিত ছিল ততটা কোনো একটা কারণে আমরা অর্জন করতে পারিনি। কিন্তু আমরা উল্লেখযোগ্যভাবে গবেষণায় মনোযোগ দিচ্ছি। উচ্চশিক্ষায় আগামীতে গবেষণা হবে একটি থ্রাস্ট সেক্টর।’

গতকাল বিকালে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশের (ইউল্যাব) ষষ্ঠ সমাবর্তনে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। করোনা পরিস্থিতির কারণে এবার ইউল্যাবের সমাবর্তন ভার্চুয়ালি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ড. কাজী শহীদুল্লাহ বলেন, ‘বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার মান নিশ্চিত করার দায়িত্ব বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর পাশাপাশি মঞ্জুরি কমিশনেরও। সরকার সেখানে যেমন তদারকি করবে, ঠিক তেমনি অবদান রাখবে। তবে দেশে বেসরকারি পর্যায়ে মানসম্মত উচ্চশিক্ষা সেবা তখনই সম্ভব হবে যখন সেবাদানকারী সংস্থা, অর্থাৎ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো নিজেরা সমাজসচেতন ও দায়িত্ববান হবে। একই সময় আমি উল্লেখ করতে চাই, বাংলাদেশের বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে লিবারেল আর্টস শিক্ষায় নতুন প্রযুক্তির সহায়তা নিতে হবে। আমাদের গ্র্যাজুয়েটস যারা মানবিকে পড়েছে তাদের আরও বেশি কম্পিউটার বিজ্ঞান শিক্ষা নিতে হবে চাকরির বাজারে সফলতা পেতে।’

তিনি বলেন, ‘আজকে শিক্ষা সবার জন্য সহজলভ্য হয়েছে। এখন আমাদের চ্যালেঞ্জ হচ্ছে মান নিশ্চিত করা। এ লক্ষ্যে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশন প্রতিনিয়ত কাজ করে চলছে। আধুনিক ও বিশ্বমানের কর্মমুখী শিক্ষা এবং শিক্ষার্থীদের মাঝে সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় দায়বদ্ধতা তৈরিতে লিবারেল আর্টস শিক্ষা ও গবেষণায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখায় ইউল্যাব বিভিন্ন স্বনামধন্য আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের স্বীকৃতি পেয়েছে।’

এ সময় গ্র্যাজুয়েটদের উদ্দেশে তিনি বলেন,‘ভালো সময়ের দিন শেষ। তোমাদের কাছে লেখাপড়া খুব কঠিন মনে হতে পারে। কিন্তু অত্যন্ত দুঃখের সঙ্গে বলছি, কঠিন সময় সামনে আসছে। সামনে তোমাদের জন্য চ্যালেঞ্জিং সময় আসছে। তোমাদের পরিবারের জন্য আয় করতে হবে, তোমাদের সফলতা অর্জন করতে হবে এবং পরিবারকে গর্বিত করতে হবে।’

এতে বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর ও রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদের পক্ষে শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি সভাপতিত্ব করেন। সমাবর্তন বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও সংসদ সদস্য মাশরাফি বিন মর্তুজা। সমাবর্তনে আরও উপস্থিত ছিলেন ইউল্যাব বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সদস্য ও সংসদ সদস্য কাজী নাবিল আহমেদ। অনলাইনে যুক্ত ছিলেন ইউল্যাব বোর্ড অব ট্রাস্টিজের সহসভাপতি কাজী আনিস আহমেদ।

এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন ইউল্যাবের উপাচার্য অধ্যাপক ইমরান রহমান, উপ-উপাচার্য অধ্যাপক সামসাদ মর্তুজা, রেজিস্ট্রার লে. কর্নেল (অব) ফয়জুল ইসলাম, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মিলন কুমার ভট্টাচার্যসহ নানা বিভাগের প্রধান, কর্মকর্তা ও শিক্ষার্থীরা।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন   ❑ পড়েছেন  ৯৩৭  জন  

সর্বশেষ..