কোম্পানি সংবাদ

উভয় বাজারে বেশিরভাগ শেয়ারের দরপতনেও সূচক ইতিবাচক

নিজস্ব প্রতিবেদক: বেশিরভাগ শেয়ারদর পতনেও গতকাল ইতিবাচক ছিল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জের (ডিএসই) সবকটি সূচক। তবে লেনদেন ফের ৩০০ কোটির নিচে নেমে গেছে। ডিএসইতে ৪৫ শতাংশ কোম্পানির দরপতন হয়। বেড়েছে ৪০ শতাংশের দর। লেনদেনের শুরুতে সূচকের উত্থান হয়। তবে সূচকের ওঠানামায় অস্থিরতা দেখা যায়। বারবার ওঠানামা করতে করতে শেষ ৫০ মিনিটে ধীরে ধীরে সূচক ঊর্ধ্বমুখী হয়। শেষ পর্যন্ত প্রধান সূচকের সাড়ে ৯ পয়েন্ট উত্থান হয়। বাকি দুই সূচকও ইতিবাচক ছিল। অন্যদিকে চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক শেয়ারদর ও লেনদেনে একই চিত্র দেখা গেছে।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৯ দশমিক ৫৫ পয়েন্ট বা এক দশমিক ২৪ শতাংশ বেড়ে চার হাজার ৭৮১ দশমিক ৪৭ পয়েন্টে অবস্থান করে।

ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক এক দশমিক ২৪ পয়েন্ট বা দশমিক ১১ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৯০ দশমিক ৮১ পয়েন্টে অবস্থান করে। আর ডিএস৩০ সূচক ছয় দশমিক ৪৪ পয়েন্ট বা দশমিক ৩৮ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৬৬৪ দশমিক ৩৫ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন এক হাজার ৬২ কোটি টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ৬০ হাজার ১৭২ কোটি টাকায়। ডিএসইতে লেনদেন হয় ২৯৬ কোটি ৬৩ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৩৬৭ কোটি ৯ লাখ ১৬ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন কমেছে ৭০ কোটি ৪৫ লাখ টাকা। এদিন ১০ কোটি শূন্য এক লাখ ২৮ হাজার ১৩টি শেয়ার ৯৫ হাজার ২৩৮ বার হাতবদল হয়। লেনদেন হওয়া ৩৩১ কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ১৩৫টির, কমেছে ১৪৯টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৪৭টির দর।

গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে ন্যাশনাল টিউবস। কোম্পানিটির ১২ কোটি ১৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর কমেছে তিন টাকা ৯০ পয়সা। এরপরে সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্সের ১০ কোটি ২৭ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে তিন টাকা ৯০ পয়সা। জেনেক্স ইনফোসিসের ৯ কোটি ৮৮ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর কমেছে চার টাকা ৮০ পয়সা। উত্তরা ব্যাংকের সাত কোটি ৮৩ লাখ টাকা লেনদেন হয়, দর কমেছে এক টাকা। ফরচুন শুজের ছয় কোটি ৩০ লাখ টাকা লেনদেন হয়, দর বেড়েছে ৬০ পয়সা। এছাড়া স্কয়ার ফার্মার ছয় কোটি ১৫ লাখ টাকা লেনদেন হয়, দর কমেছে ২০ পয়সা। খুলনা পাওয়ারের পাঁচ কোটি ৫৬ লাখ টাকা, বঙ্গজের পাঁচ কোটি টাকা, সুহƒদ ইন্ডাস্ট্রিজের পাঁচ কোটি টাকা, রূপালী লাইফের চার কোটি ৬৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

আট দশমিক ৮৬ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে ন্যাশনাল ফিড মিল। সোনারবাংলা ইন্স্যুরেন্সের দর আট দশমিক ৭৪ শতাংশ, ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের সাত দশমিক ৩৫ শতাংশ, ফাইন ফুডসের সাত দশমিক ৩৫ শতাংশ, অলিম্পিক এক্সেসরিজের দর ছয় দশমিক ৯৪ শতাংশ, তোসরিফা ইন্ডাস্ট্রিজের দর ছয় দশমিক ৮৯ শতাংশ, ইস্টার্ন ইন্স্যুরেন্সের দর ছয় দশমিক ৮৬ শতাংশ, প্যারামাউন্ট টেক্সটাইলের দর ছয় দশমিক ৫৫ শতাংশ, লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের দর ছয় দশমিক ৩২ শতাংশ, সুহƒদ ইন্ডাস্ট্রিজের দর পাঁচ দশমিক ৩৩ শতাংশ বেড়েছে।

আট দশমিক ১৩ শতাংশ দর কমে শীর্ষে উঠে আসে জেনেক্স ইনফোসিস। প্রগ্রেসিভ লাইফের দর সাত দশমিক ১৩ শতাংশ, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিকের দর ছয় দশমিক ৮২ শতাংশ, সাভার রিফ্র্যাক্টরিজের দর পাঁচ দশমিক ৯৫ শতাংশ, আইসিবি ইসলামী ব্যাংকের দর পাঁচ দশমিক ৭১ শতাংশ, বিচ হ্যাচারির দর পাঁচ দশমিক ৫৯ শতাংশ, ন্যাশনাল টিউবসের দর পাঁচ দশমিক ২৩ শতাংশ, অ্যাটলাস বাংলাদেশের দর পাঁচ শতাংশ, সিএনএ টেক্সের দর চার দশমিক ৭৬ শতাংশ ও ইভিন্স টেক্সটাইলের দর চার দশমিক ৭৬ শতাংশ কমেছে।

অন্যদিকে সিএসইতে গতকাল সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ২৩ দশমিক শূন্য পাঁচ পয়েন্ট বা দশমিক ২৬ শতাংশ বেড়ে আট হাজার ৮২১ দশমিক ৬৬ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৩৭ দশমিক ১১ পয়েন্ট বা দশমিক ২৫ শতাংশ বেড়ে ১৪ হাজার ৫২০ দশমিক ৩৮ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল সর্বমোট ২২৯টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৮৭টির, কমেছে ১০৫টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৭টির দর।

সিএসইতে এদিন ৩৪ কোটি ১৪ লাখ ৮৪ হাজার ৬৫১ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৯০ কোটি ছয় লাখ ১২ হাজার ২৩০ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে ৫৫ কোটি ৯১ লাখ টাকা।

সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে অবস্থান করে সিলকো ফার্মা। কোম্পানিটির ১০ কোটি ৯৪ লাখ টাকা লেনদেন হয়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..