কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

উভয় বাজারে লেনদেন বেড়েছে ১৯৭ কোটি টাকা

সূচক ইতিবাচক

নিজস্ব প্রতিবেদক: সপ্তাহের তৃতীয় দিনে উভয় বাজারে সূচক শেয়ারদর ও লেনদেনে ইতিবাচক গতি দেখা গেছে। গতকাল ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) সাড়ে ৬৫ শতাংশ কোম্পানির  দর বেড়েছে। এতে করে ডিএসইএক্স সূচক ৩১ পয়েন্ট ইতিবাচক হয়। বাকি দুই সূচকও ইতিবাচক ছিল। লেনদেন ১৮৯ কোটি টাকা বেড়ে ৬০০ কোটি টাকা হয়েছে। লেনদেনের শুরুতেই সূচকের উত্থান হয়। এরপর দুপুর ১২টার দিকে সূচকের সর্বোচ্চ উত্থান হয়। সূচক চার হাজার ৫০৭ পয়েন্ট ছাড়িয়ে গেলে সাড়ে ১২টার দিকে সূচক ধীরে ধীরে নেমে যেতে থাকে। তবে শেষ পর্যন্ত ইতিবাচক থাকতে পেরেছে। চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) একই চিত্র দেখা গেছে। লেনদেন বেড়েছে আট কোটি টাকা।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩১ দশমিক ২৫ পয়েন্ট বা দশমিক ৭০ শতাংশ বেড়ে চার হাজার ৪৬৬ দশমিক শূন্য সাত পয়েন্টে অবস্থান করে।

ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক সাত দশমিক ৯২ পয়েন্ট বা দশমিক ৭৬ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৩৮ দশমিক শূন্য আট পয়েন্টে এবং ডিএস৩০ সূচক ৫ দশমিক ৪৫ পয়েন্ট বা দশমিক ৩৬ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৪৮৫ দশমিক ১৬ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন এক হাজার ৯৮৮ কোটি টাকা বেড়ে  দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ৪১ হাজার ৮৪২ কোটি ৫৩ লাখ ৫৭ হাজার টাকায়। ডিএসইতে লেনদেন হয় ৬০৯ কোটি ছয় লাখ ৭৪ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৪১৯ কোটি ৭৪ লাখ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন বেড়েছে ১৮৯ কোটি ৩২ লাখ টাকা। এদিন ২৭ কোটি ১৭ লাখ দুই হাজার ৮০৮টি শেয়ার এক লাখ ৫৫ হাজার ৩১৮ বার হাতবদল হয়। লেনদেন হওয়া ৩৫৫ কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৮৪টির, কমেছে ৩৮টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৮টির দর।

গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে ভিএফএস থ্রেড ডায়িং। কোম্পানিটির ১৮ কোটি ৫০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর বেড়েছে এক টাকা ৭০ পয়সা। এরপরে স্কয়ার ফার্মার ১৬ কোটি ৭৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর কমেছে ৪০ পয়সা। সেন্ট্রাল ফার্মার ১৫ কোটি ৩১ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে এক টাকা ৩০ পয়সা। ফার কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজের ১৩ কোটি ৪৪ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর কমেছে ২০ পয়সা। ড্যাফোডিল কম্পিউটার্সের ১২ কোটি ৫৮ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ৬০ পয়সা। এছাড়া ওরিয়ন ইনফিউশনের ১২ কোটি ৪৬ লাখ টাকা, লাফার্জহোলসিমের ৯ কোটি ৯৪ লাখ টাকা, সিলভা ফার্মার ৯ কোটি ৮৩ লাখ টাকা, ওরিয়ন ফার্মার ৯ কোটি ৬২ লাখ ও গ্রামীণফোনের ৯ কোটি ৩২ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।  

১০ শতাংশ করে বেড়ে নূরানী ডায়িং ও সিলকো ফার্মা দর বৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে। শেফার্ড ইন্ডাস্ট্রিজের দর ৯ দশমিক ৮৯ শতাংশ, প্রিমিয়ার লিজিংয়ের দর ৯ দশমিক ৮০ শতাংশ, আলিফ ম্যানুফ্যাকচারিংয়ের দর ৯ দশমিক ৪৫ শতাংশ, আইসিবি এমপ্লয়িজ প্রভিডেন্ড মিউচুয়াল ফান্ডের দর ৯ দশমিক ২৩ শতাংশ, মেঘনা সিমেন্টের দর ৯ দশমিক ২০ শতাংশ, সমতা লেদারের দর ৯ দশমিক শূন্য সাত শতাংশ, ফারইস্ট নিটিং ও ডায়িংয়ের দর আট দশমিক ৮২ শতাংশ ও ম্যাকসন্স স্পিনিংয়ের দর আট দশমিক ৭৭ শতাংশ বেড়েছে।  

আট দশমিক ৪৪ শতাংশ কমে দরপতনের শীর্ষে উঠে আসে স্ট্যান্ডার্ড সিরামিক। গ্রীনডেল্টা ইন্স্যুরেন্সের দর সাত দশমিক ৫২ শতাংশ কমেছে। রেনউইক যজ্ঞেশ্বরের দর সাত দশমিক শূন্য তিন শতাংশ, মেঘনা পেটের দর সাত শতাংশ কমেছে।                   

অন্যদিকে সিএসইতে গতকাল সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ৬৩ দশমিক ৩৭ পয়েন্ট বা দশমিক ৭৭ শতাংশ বেড়ে  আট হাজার ২৮২ দশমিক ৮৯ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১০৬ দশমিক ৯৮ পয়েন্ট বা দশমিক ৭৮ শতাংশ বেড়ে ১৩ হাজার ৬৬৬ দশমিক শূন্য চার পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল সর্বমোট ২৫৬ কোম্পানি এবং মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ১৮২টির, কমেছে ৫২টির, অপরিবর্তিত ছিল ২২টির দর।

সিএসইতে এদিন ২৪ কোটি ৯ লাখ ৮০ হাজার ৩৯১ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ১৬ কোটি দুই লাখ ছয় হাজার ৪৯৮ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন বেড়েছে আট কোটি টাকা। 

সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে অবস্থান করে ভিএফএস থ্রেড। কোম্পানিটির এক কোটি ৮৭ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এরপরের অবস্থানগুলোতে থাকা এসকে ট্রিমসের এক কোটি ৫৯ লাখ, অ্যাডভেন্ট ফার্মার এক কোটি ৩২ লাখ, এসএস স্টিলের ৭৪ লাখ, লাফার্জহোলসিমের ৭০ লাখ, ফার কেমিক্যাল ইন্ডাস্ট্রিজের ৬৭ লাখ, সেন্ট্রাল ফার্মার ৫৫ লাখ, কাট্টলী টেক্সটাইলের ৫১ লাখ, শেফার্ডের ৫১ লাখ ও সিলকো ফার্মার ৪৯ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..