কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

উভয় বাজারে সূচক বাড়লেও লেনদেন সামান্য কমেছে

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) গতকাল সপ্তাহের শেষ কার্যদিবসে ডিএসইতে সিংহভাগ শেয়ারের দর বাড়ার সঙ্গে সূচক বেড়েছে। তবে লেনদেন ৩৭ কোটি টাকা কমেছে। এদিন মোট ৩৬২টি কোম্পানির শেয়ার লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ১৫৯টির এবং কমেছে ১৩৩টির। বাকি ৭০টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ারদর অপরিবর্তিত ছিল। গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয় দুই হাজার ৭০ কোটি ৮৫ লাখ ৪৮ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল দুই হাজার ১০৮ কোটি ৪৯ লাখ ৮২ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। অর্থাৎ লেনদেন কমেছে ৩৭ কোটি ৬৪ লাখ ৩৪ হাজার টাকা। এদিন ৬৬ কোটি ২২ লাখ ৭৬ হাজার ২৩৮টি শেয়ার দুই লাখ ৬৪ হাজার ৮৩১ বার হাতবদল হয়। গতকাল লেনদেনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত উত্থান পতনের মধ্য দিয়ে লেনদেন শেষ হয়। অন্যদিকে চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) একই চিত্র দেখা গেছে।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ১৩৯ দশমিক ৩০ পয়েন্ট বা দুই দশমিক ৪১ শতাংশ বেড়ে পাঁচ হাজার ৯০৯ দশমিক ৩০ পয়েন্টে পৌঁছায়। ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক ২১ দশমিক ৮৭ পয়েন্ট বা এক দশমিক ৬৮ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৩২৩ দশমিক ৫০ পয়েন্টে অবস্থান করে। অন্যদিকে ডিএস৩০ সূচক ৭৬ দশমিক ৮৯ পয়েন্ট বা তিন দশমিক ৫৬ শতাংশ বেড়ে দুই হাজার ২৩৬ দশমিক ৭৭ পয়েন্টে স্থির হয়। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন ১১ হাজার ৩৯৩ কোটি ৩৭ লাখ ৫২ হাজার টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে পাঁচ লাখ এক হাজার ৭০৯ কোটি ৬৪ লাখ ৮০ হাজার টাকায়।

গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে বাংলাদেশ এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট কোম্পানি লিমিটেড। কোম্পানিটির ১৮৪ কোটি এক লাখ ৯৮ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর সাত টাকা ৯০ পয়সা বেড়েছে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের ১২৩ কোটি ৭২ লাখ ৬৮ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির শেয়ারদর দুই টাকা ৮০ পয়সা বেড়েছে। রবি আজিয়াটা লিমিটেডের ৯৭ কোটি ৩৮ লাখ ৭৬ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারদর ছয় টাকা ৩০ পয়সা বেড়েছে।

এর পরের অবস্থানগুলোয় থাকা সামিট পাওয়ার লিমিটেডের ৮০ কোটি ৯১ লাখ ৫৪ হাজার টাকার, লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ লিমিটেডের ৮০ কোটি ৬৬ লাখ ৭৮ হাজার টাকার, আইএফআইসি ব্যাংক লিমিটেডের ৭২ কোটি ৪৭ লাখ ১৬ হাজার, সিটি ব্যাংক লিমিটেডের ৬৩ কোটি চার লাখ ৩৬ হাজার, পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি বাংলাদেশ লিমিটেডের ৫২ কোটি ৮৮ লাখ ৯৯ হাজার, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেডের ৫১ কোটি ৬২ লাখ ১৭ হাজার টাকার এবং ব্রিটিশ আমেরিকান টোব্যাকো কোম্পানি বাংলাদেশ লিমিটেডের ৪৬ কোটি ২১ লাখ ২৪ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

১০ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে ছিল জিবিবি পাওয়ার লিমিটেড। পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি বাংলাদেশ লিমিটেডের ৯ দশমিক ৯৮ শতাংশ, বাংলাদেশ এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট কোম্পানি লিমিটেডের ৯ দশমিক ৯৩ শতাংশ, মাইডাস ফাইন্যান্সিং লিমিটেডের ৯ দশমিক ৯১ শতাংশ, লংকাবাংলা ফাইন্যান্স লিমিটেডের ৯ দশমিক ৮৭ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে। রবি আজিয়াটা লিমিটেডের ৯ দশমিক ৮৭ শতাংশ, সাইফ পাওয়ারটেক লিমিটেডের ৯ দশমিক ৮৭ শতাংশ, সামিট পাওয়ার লিমিটেডের ৯ দশমিক ৮২ শতাংশ, বাংলাদেশ ফাইন্যান্স অ্যান্ড ইনভেস্টমেন্ট লিমিটেডের ৯ দশমিক ৭৭ শতাংশ এবং সিটি ব্যাংক লিমিটেডের ৯ দশমিক ৭১ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ২৫৯ দশমিক ৭২ পয়েন্ট বা দুই দশমিক ৫৬ শতাংশ বেড়ে ১০ হাজার ৩৮৭ দশমিক শূন্য ৯ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ৪২২ দশমিক ৯০ পয়েন্ট বা দুই দশমিক ৫১ শতাংশ বেড়ে ১৭ হাজার ২১৯ দশমিক ৯৮ পয়েন্টে অবস্থান করে। সিএসইতে ২৮৬টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। দর বেড়েছে ১৩৭টির, কমেছে ১০৭টির এবং ৪২টির দর অপরিবর্তিত ছিল। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৮৩ কোটি ৭৭ লাখ ৭৪ হাজার ৫৪৪ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ১৪১ কোটি ৬০ লাখ ৫৫ হাজার ৬২৭ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে ৫৭ কোটি ৮২ লাখ ৮১ হাজার ৮৩ টাকার।

সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে বরি আজিয়াটা লিমিটেড। কোম্পানিটির ২০ কোটি ৭৯ লাখ ৬০ হাজার হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা বীকন ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের পাঁচ কোটি দুই লাখ ৯০ হাজার টাকার, লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ লিমিটেডের চার কোটি ৩৮ লাখ ৮০ হাজার টাকার, বাংলাদেশ এক্সপোর্ট-ইমপোর্ট কোম্পানি লিমিটেডের চার কোটি চার লাখ ১০ হাজার, আল-আরাফাহ্ ইসলামী ব্যাংক লিমিটেডের দুই কোটি ৪১ লাখ ৯০ হাজার টাকার লেনদেন হয়েছে। ন্যাশনাল ব্যাংক লিমিটেডের দুই কোটি ৪১ লাখ ৪০ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এর পরের অবস্থানগুলোয় থাকা বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেডের দুই কোটি ১৮ লাখ ৫০ হাজার টাকার, সিটি ব্যাংক লিমিটেডের দুই কোটি ১২ লাখ ১০ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..