কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

উভয় বাজারে সূচক শেয়ারদর ও লেনদেনে পতন

নিজস্ব প্রতিবেদক:সপ্তাহের দ্বিতীয় দিনে উভয় পুঁজিবাজারে সূচকের সংশোধন হয়েছে। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) ৭২ শতাংশ কোম্পানির দরপতনে ডিএসইএক্স সূচকের ৩৫ পয়েন্ট পতন হয়। সেইসঙ্গে বাকি দুই সূচকও পতনে ছিল। লেনদেন কমে ৪০০ কোটির ঘরে নেমে এসেছে। লেনদেনের শুরু থেকেই কেনা ও বেচার চাপে একবার সূচক ঊর্ধ্বমুখী হলেও কিছুক্ষণ পরই ফের নেমে যায়। এভাবে চলার পর দুপুর ১২টার পর থেকে সূচক ধীরে ধীরে নেমে যায়। শেষ ৪৫ মিনিটে কেনার চাপ সামান্য বাড়লেও সূচক ৩৫ পয়েন্ট নি¤œমুখী অবস্থানে থেকে যায়। চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) সূচক, শেয়ারদর ও লেনদেনে একই চিত্র লক্ষ করা যায়।

বাজার পর্যবেক্ষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩৫ দশমিক ১৮ পয়েন্ট বা দশমিক ৭৭ শতাংশ কমে চার হাজার ৪৯৩ দশমিক ০১ পয়েন্টে অবস্থান করে।

ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক তিন দশমিক ৫০ পয়েন্ট বা দশমিক ৩৩ শতাংশ কমে এক হাজার ৩১ দশমিক ৭২ পয়েন্টে এবং ডিএস৩০ সূচক চার দশমিক ৬২ পয়েন্ট বা দশমিক ২৯ শতাংশ কমে এক হাজার ৫৪১ দশমিক ২৩ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল ডিএসইর বাজার মূলধন এক হাজার ২৮৭ কোটি টাকা কমে দাঁড়িয়েছে তিন লাখ ৪৪ হাজার ২০৫ কোটি দুই লাখ ৬০ হাজার টাকায়। ডিএসইতে লেনদেন হয় ৪০৪ কোটি ৫৮ লাখ ১০ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৪৭৪ কোটি ১৪ লাখ ৬৫ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন কমেছে ৬৯ কোটি ৫৬ লাখ টাকা। এদিন ১৩ কোটি ০৬ লাখ ৯২ হাজার ৪৩১টি শেয়ার এক লাখ ২২ হাজার ২৮৮ বার হাতবদল হয়। লেনদেন হওয়া ৩৫৪ কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের মধ্যে দর বেড়েছে ৬৬টির, কমেছে ২৫৫টির এবং অপরিবর্তিত ছিল ৩৩টির দর।

গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশ। কোম্পানিটির ৩৫ কোটি আট লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর বেড়েছে দুই টাকা ২০ পয়সা। এরপর স্কয়ার ফার্মার ১৫ কোটি ৫৪ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর কমেছে ২০ পয়সা। বাংলাদেশ সাবমেরিন কেব্লসের ১২ কোটি ৫৩ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর বেড়েছে তিন টাকা ১০ পয়সা। বিএটিবিসির ১০ কোটি টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ৩৭ টাকা ৩০ পয়সা। এসকে ট্রিমসের আট কোটি ৯৪ লাখ টাকা লেনদেন হয়। দর কমেছে দেড় টাকা। এছাড়া এসএস স্টিলের আট কোটি ৪২ লাখ টাকা, প্যারামাউন্ট টেক্সের ছয় কোটি ৯১ লাখ, নিউ লাইন ক্লোথিংয়ের ছয় কোটি ৪৪ লাখ, এডিএন টেলিকমের ছয় কোটি ও খুলনা পাওয়ারের পাঁচ কোটি ৮৫ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়।  

আট দশমিক ২৭ শতাংশ বেড়ে নর্দার্ন জুট দর বৃদ্ধির শীর্ষে উঠে আসে। এরপরে ইবিএল এনআরবি মিউচুয়াল ফান্ডের দর ছয় দশমিক ৯৭ শতাংশ, স্ট্যান্ডার্ড সিরামিকের দর পাঁচ দশমিক ৮৫ শতাংশ, এমএল ডায়িংয়ের দর পাঁচ দশমিক ৬৪ শতাংশ, লাফার্জহোলসিম বাংলাদেশের দর চার দশমিক ২৬ শতাংশ, প্রিমিয়ার সিমেন্টের দর তিন দশমিক ২৩ শতাংশ, বিএটিবিসির দর তিন দশমিক ২০ শতাংশ, বাংলাদেশ সাবমেরিন কেব্লসের দর তিন দশমিক ১৭ শতাংশ, হা ওয়েল টেক্সের দর দুই দশমিক ৯৪ শতাংশ ও মিরাকল ইন্ডাস্ট্রিজের দর দুই দশমিক ৪৫ শতাংশ বেড়েছে।     

অন্যদিকে সিএসইতে গতকাল সিএসসিএক্স মূল্যসূচক ৮৪ দশমিক ১২ পয়েন্ট বা এক শতাংশ কমে আট হাজার ২৮১ দশমিক ২৫ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৩৬ দশমিক ৩২ পয়েন্ট বা দশমিক ৯৮ শতাংশ কমে ১৩ হাজার ৬৫৬ দশমিক ৪০ পয়েন্টে অবস্থান করে। গতকাল সর্বমোট ২৪৭ কোম্পানি এবং মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। এর মধ্যে দর বেড়েছে ৪৮টির, কমেছে ১৭৭টির ও অপরিবর্তিত ছিল ২২টির দর।

সিএসইতে এদিন ১২ কোটি ৬৩ লাখ ১৩ হাজার ৯০৯ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয় ১৬ কোটি দুই লাখ ১১ হাজার ১৮৯ টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসেবে লেনদেন কমেছে তিন কোটি ৩৯ লাখ টাকা। 

সিএসইতে লেনদেনের শীর্ষে অবস্থান করে লাফার্জহোলসিম। কোম্পানিটির এক কোটি ৪৬ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। এর পরের অবস্থানগুলোতে থাকা এসএস স্টিলের ৮৩ লাখ, বিএটিবিসির ৪৩ লাখ, এডিএন টেলিকমের ৪২ লাখ, বেক্সিমকোর ৩৬ লাখ, বিএসসিসিএলের ৩৪ লাখ, লংকাবাংলা ফাইন্যান্সের ২৭ লাখ, স্কয়ার ফার্মার ২৫ লাখ, ফরচুন সুজের ২৫ লাখ ও সাইফ পাওয়ারের ২০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। 

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..