শোবিজ

ঋত্বিক ঘটকের বোন প্রতীতি দেবী আর নেই

শোবিজ ডেস্ক: চলচ্চিত্র নির্মাতা ঋত্বিক ঘটকের যমজ বোন প্রতীতি দেবী আর নেই। গত রোববার রাত সাড়ে ৮টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৫ বছর। গতকাল দুপুর ১টায় আনুষ্ঠানিকভাবে মেয়ে আরমা দত্তসহ আত্মীয়-পরিজন হাসপাতালে গিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে প্রতীতি দেবীর মরদেহ গ্রহণ করেন। শেষবারের মতো তার মরদেহ নেওয়া হয় বড় মগবাজারের বাসস্থান সেঞ্চুরি টাওয়ারে। সেখানে তাকে সবাই শেষ শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। চিকিৎসা বিজ্ঞানের শিক্ষার্থীদের গবেষণার জন্য মৃত্যুর আগেই লিখিতভাবে দেহদান করেছিলেন প্রতীতি দেবী। ১৯২৫ সালের ৪ নভেম্বর পুরান ঢাকার ঋষিকেশ দাস রোডে জš§গ্রহণ করেন দুই যমজ ভাইবোন ঋত্বিক ঘটক আর প্রতীতি দেবী। ৯ ভাইবোনের মধ্যে অষ্টম ছিলেন ঋত্বিক আর নবম ছিলেন প্রতীতি দেবী। দেশভাগের (পাকিস্তান-ভারত) পর দুজন দুদেশের হয়ে যান। প্রতীতি দেবীর মৃত্যুতে ঋত্বিক ঘটকের পরিবারের সর্বশেষ চিহ্নটুকু হারিয়ে গেল। এখন দুজনই ইতিহাস। প্রতীতি দেবী ছিলেন ঋত্বিকের চেয়ে পাঁচ মিনিটের ছোট। তাদের বাবা তৎকালীন ঢাকার জেলা ম্যাজিস্ট্রেট সুরেশ ঘটক ও মা ইন্দুবালা দেবী।

প্রতীতি দেবীর বিয়ে হয় ভাষা সংগ্রামী ও পূর্ব পাকিস্তানের মন্ত্রী ধীরেন্দ্রনাথ দত্তের ছেলে সঞ্জীব দত্তের সঙ্গে। তার দুই ছেলেমেয়ে। ছেলে রাহুল দত্ত ও মেয়ে আরমা দত্ত। তিনি যমজ ভাই ঋত্বিককে নিয়ে ‘ঋত্বিককে শেষ ভালোবাসা’ শিরোনামের একটি বইও লিখেছেন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..