বিশ্বসাথে

একশ’তে এআইআইবির সদস্য দেশের সংখ্যা

এআইআইবির সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, লুক্সেমবার্গে বার্ষিক সভায় আফ্রিকার তিনটি দেশ বেনিন, জিবুতি এবং রুয়ান্ডাকে এআইআইবির নতুন সদস্য করা হয়েছে।

২০১৬ সালের জানুয়ারিতে ৫৭টি দেশ নিয়ে চীনের নেতৃত্বাধীন এশীয় অবকাঠামো বিনিয়োগ ব্যাংকের যাত্রা শুরু হয়েছিল।

বাংলাদেশ শুরু থেকেই এআইআই’র সদস্য।

লুক্সেমবার্গ থেকে পাঠানো সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে  সংস্থাটির প্রেসিডেন্ট জিন লিকুন বলেন, এআইবিবির সদস্যভূক্ত এই ১০০টি দেশের জনসংখ্যা বিশ্বের মোট জনগোষ্ঠীর ৭৮ শতাংশ। আর বিশ্ব অর্থনীতির জিডিপি প্রবৃদ্ধির ৬৩ শতাংশ।

এই দেশগুলোর টেকসই উন্নয়নে এআইআইবি সহায়তা করবে বলে জানান সংস্থাটির প্রেসিডেন্ট।

 

পানি-পয়ঃনিষ্কাশনে ১০ কোটি ডলার পাচ্ছে বাংলাদেশ

লুক্সেমবার্গে অনুষ্ঠিত বার্ষিক সভায় বাংলাদেশের পৌরসভা এলাকায় সুপেয় পানি সরবরাহ এবং পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থার উন্নয়নে ১০ কোটি ডলারের ঋণ অনুমোদন দিয়েছে সংস্থাটি।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, মোট ৩০ কোটি ডলাররে এই প্রকল্পে বিশ্ব ঋণ দিচ্ছে ব্যাংক ১০ কোটি ডলার। বাকি অর্থ বাংলাদেশ সরকার তার নিজস্ব তহবিল থেকে যোগান দেবে।

বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল লুক্সেমবার্গে অনুষ্ঠিত এআইআইবি‘র ওই সভায় যোগ দিয়েছেন।

শনিবার অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, এআইআইবি‘র বার্ষিক সভায় যোগ দিয়ে অর্থমন্ত্রী সংস্থাটির প্রেসিডেন্ট জিন লিকুনের কাছে বাংলাদেশের ব্যাপক উন্নয়ন চিত্র তুলে ধরেন।

মুস্তফা কামাল বলেন, “প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অর্থনীতি এবং সামাজিক উন্নয়ন দুই খাতেই বাংলাদেশ ব্যাপক উন্নয়ন করেছে। বাংলাদেশ এখন ৮ শতাংশের বেশি প্রবৃদ্ধি অর্জন করেছে। ২০২৪ সাল নাগাদ এ প্রবৃদ্ধি দুই অংকের ঘরে উন্নীত হবে বলে আমরা আশা করছি।”

দুই অঙ্কের প্রবৃদ্ধিতে উন্নীত হওয়ার পাশাপাশি পরবর্তী যুগের প্রবৃদ্ধিকে টেকসই করতে জ্বালানি, যোগাযোগ ও সামাজিক অবকাঠামো, বিশেষ করে শিক্ষা খাতে বিপুল অর্থ-সহযোগিতার প্রয়োজনের কথা এআইআইবি প্রেসিডেন্টের কাছে তুলে ধরেন বাংলাদেশের অর্থমন্ত্রী।

জিন লিকুন বাংলাদেশের ‘অসাধারণ উন্নয়নের’ প্রশংসা করে এআইআিইবি‘র পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় সব ধরনের  সহযোগিতার আশ্বাস দেন বলে অর্থ মন্ত্রণালয় জানায়।

 

২০২০ সালের বার্ষিক সভা চীনের বেইজিংয়ে

লুক্সেমবার্গের সভায় ঘোষণা দেয়া হয়, ২০২০ সালের সংস্থাটির বার্ষিক সভা চীনের বেইজিংয়ে অনুষ্ঠিত হবে। চীন এআইআইবির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য।

সর্বশেষ..