কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

একীভূত হচ্ছে বিএসআরএম ও বিএসআরএম স্টিল মিলস

নিজস্ব প্রতিবেদক: আগামী ১ ফেব্রুয়ারি থেকে একীভূত হচ্ছে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত প্রকৌশল খাতের কোম্পানি বাংলাদেশ স্টিল রি-রোলিং মিলস লিমিটেড (বিএসআরএম) এবং এর সহযোগী প্রতিষ্ঠান বিএসআরএম স্টিল মিলস লিমিটেড। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, হাইকোর্টের অনুমোদন এবং কোম্পানি দুটির পরিচালনা পর্ষদের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আগামী ১ ফেব্রয়ারি থেকে বাংলাদেশ স্টিল রি-রোলিং মিলস লিমিটেড এবং বিএসআরএম স্টিল মিলস লিমিটেড একীভূত হবে। এর আগে ২০১৯ সালের সেপ্টেম্বরে কোম্পানি দুটির পরিচালনা পর্ষদ একীভূতকরণের সিদ্ধান্ত নেয়। পরিচালনা পর্ষদের সিদ্ধান্তের পর একীভূতকরণের অনুমোদনের জন্য হাইকোর্টে আবেদন করা হয়। হাইকোর্টের অনুমতি প্রাপ্তি ও বিনিয়োগকারীদের সম্মতি পাওয়ার পর কোম্পানির পরিচালনা পর্ষদ একীভূত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

উল্লেখ, পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত বাংলাদেশ স্টিল রি-রোলিং মিলস লিমিটেড বর্তমানে তার সহযোগী প্রতিষ্ঠান বিএসআরএম স্টিল মিলস লিমিটেডের ৪৪ দশমিক ৯৭ শতাংশ শেয়ার ধারণ করছে।

এদিকে ২০২০ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে ১৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে প্রকৌশল খাতের এই কোম্পানিটি। আলোচিত সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে তিন টাকা ৯০ পয়সা, আর ২০২০ সালের ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ৯৯ টাকা ৮৯ পয়সা। এর আগে ২০১৯ সালের ৩০ জুন সমাপ্ত হিসাববছরের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে ২৫ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ দিয়েছে। আলোচিত সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে সাত টাকা ৮৮ পয়সা, আর ২০১৯ সালের ৩০ জুন শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ৯৭ টাকা ৪৬ পয়সা।

এদিকে গতকাল ডিএসইতে কোম্পানিটির শেয়ারদর ছয় দশমিক ১৭ শতাংশ বা চার টাকা ৩০ পয়সা বেড়ে প্রতিটি সর্বশেষ ৭৪ টাকায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ৭৪ টাকা ৩০ পয়সা। দিনজুড়ে ১২ লাখ ১৮ হাজার ৮৬৪টি শেয়ার এক হাজার ২৩৫ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর ৯ কোটি ১৫ লাখ ৬০ হাজার টাকা। গত এক বছরে কোম্পানিটির শেয়ারদর ৪৭ টাকা ১০ পয়সা থেকে ৮০ টাকা ৮০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করে।

প্রকৌশল খাতের এ কোম্পানিটি ২০১৫ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে বর্তমানে ‘এ’ ক্যাটেগরিতে অবস্থান করছে। ৫০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ২৩৬ কোটি ছয় লাখ ৮০ হাজার টাকা। কোম্পানির রিজার্ভের পরিমাণ দুই হাজার ৭১ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। কোম্পানিটির মোট ২৩ কোটি ৬০ লাখ ৬৮ হাজার ২৩৭টি শেয়ার রয়েছে। ডিএসইর সর্বশেষ তথ্যমতে, কোম্পানির মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের কাছে ৪০ দশমিক ৯৮ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক ১৯ দশমিক ৬৪ শতাংশ, বিদেশি বিনিয়োগকারীদের ১৭ দশমিক শূন্য সাত শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে বাকি ২২ দশমিক ৩১ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..