প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

এক দশক পর প্রাথমিকে ছাত্র পরিষদ নির্বাচন

নিজস্ব প্রতিবেদক: শৈশবেই গণতন্ত্র চর্চার সঙ্গে পরিচয় ঘটাতে এক দশক পর আবারও প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষার্থী প্রতিনিধি নির্বাচনের উদ্যোগ নিয়েছে প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তর। অধিদপ্তর জানিয়েছে, আগামী ২ জুন সারাদেশে স্টুডেন্টস কাউন্সিলের ভোটগ্রহণ হবে। সকাল ৯টা থেকে বেলা ১টা পর্যন্ত নিজ নিজ স্কুলে ভোট দেবে শিক্ষার্থীরা। ওইদিনই ফল জানা যাবে। সূত্র: বিডিনিউজ।

এর আগে ২২ মে বিদ্যালয়গুলোয় নির্বাচন কমিশনার নিয়োগ দেয়া হবে। পরদিন হবে ভোটার তালিকা ও তফসিল ঘোষণা। ২৮ মে আগ্রহী শিক্ষার্থীরা মনোনয়নপত্র জমা দিতে পারবে। ৩০ মে মনোয়নয়নপত্র প্রত্যাহার করা যাবে, ওইদিন চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হবে।

২০১০ সালের জুনে প্রথমবারের মতো ২০টি উপজেলার ১০০টি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পরীক্ষামূলকভাবে স্টুডেন্টস কাউন্সিল নির্বাচন হয়েছিল। সেই নির্বাচনে ব্যাপক সাড়া মেলার পর ২০১১ সালে ৭৪১টি এবং ২০১২ সালে ১৩ হাজার ৫৮৩টি বিদ্যালয়ে খুদেদের এ নির্বাচন হয়। ২০১৩ সালে দেশের সব প্রাথমিক বিদ্যালয়ে স্টুডেন্টস কাউন্সিল গঠনের পরিকল্পনা থাকলেও নানা জটিলতায় তা আটকে যায়।