কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

এক দিন পর আবার ডিএসইতে বাজার মূলধন ও প্রধান সূচকের রেকর্ড

নিজস্ব প্রতিবেদক: ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে গতকাল সোমবার চলতি সপ্তাহের দ্বিতীয় কার্যদিবসে পুনরায় বাজার মূলধন, প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ও ডিএস৩০ সূচকের নতুন রেকর্ড হয়েছে। এর আগে গত রোববারের রেকর্ড ভেঙে আসন্ন ঈদুল আজহাকে সামনে রেখে গতকাল শেষ কার্যদিবসে আবার নতুন রেকর্ডের ঘটনা ঘটল। বাজার বিশ্লেষণে দেখা গেছে, গতকাল ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৩৯ দশমিক ৯২ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৬২ শতাংশ বেড়ে ছয় হাজার ৪০৫ দশমিক শূন্য চার পয়েন্টে পৌঁছায়, যা ডিএসইর ইতিহাসে সর্বোচ্চ। আর ডিএসইএস বা শরিয়াহ্ সূচক আট দশমিক ৩৭ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৬০ শতাংশ বেড়ে এক হাজার ৩৮৭ দশমিক ৭৬ পয়েন্টে অবস্থান করে। অন্যদিকে ডিএস৩০ সূচক ১৬ দশমিক ৩৫ পয়েন্ট বা শূন্য দশমিক ৭০ শতাংশ বেড়ে দুই হাজার ৩২২ দশমিক ৩৭ পয়েন্টে স্থির হয়, যা ডিএসইর ইতিহাসে সর্বোচ্চ।

এদিকে দুই হাজার ৮৭৩ কোটি টাকা বেড়ে গতকাল বাজার মূলধন দাঁড়িয়েছে পাঁচ লাখ ৩৫ হাজার ১৮৫ কোটি টাকায়, যা ডিএসইর ইতিহাসে সর্বোচ্চ।

ডিএসইতে এদিন মোট ৩৭২টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ার ও ইউনিট লেনদেন হয়। দর বেড়েছে ১৫৯টির এবং কমেছে ১৭৯টির। বাকি ৩৪টি কোম্পানি ও মিউচুয়াল ফান্ডের শেয়ারদর অপরিবর্তিত ছিল। গতকাল ডিএসইতে লেনদেন হয় এক হাজার ২৬৪ কোটি ৪৯ লাখ ৩৪ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল এক হাজার ৭৯৩ কোটি দুই লাখ ৮২ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। অর্থাৎ লেনদেন কমেছে ৫২৮ কোটি টাকা।

ডিএসইতে এদিন ৪৫ কোটি ৫৫ লাখ ২৫ হাজার ২৮৬টি শেয়ার দুই লাখ ৩৭ হাজার ৫৫০ বার হাতবদল হয়। গতকাল লেনদেনের শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত উত্থানের চিত্র দেখা গেছে। অন্যদিকে চিটাগং স্টক এক্সচেঞ্জেও (সিএসই) সূচক বাড়লেও লেনদেন কমেছে।

ডিএসইতে গতকাল টাকার অঙ্কে লেনদেনের শীর্ষে উঠে আসে সাইফ পাওয়ারটেক লিমিটেড। কোম্পানিটির ২৮ কোটি ৪০ লাখ টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। শেয়ারটির দর ৪০ পয়সা বেড়েছে। দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রিটিশ আমেরিকান ট্যোবাকো বাংলাদেশ কোম্পানি লিমিটেডের ২৩ কোটি ৮৩ লাখ টাকার লেনদেন হয়েছে। কোম্পানিটির শেয়ারদর তিন টাকা ৫০ পয়সা বেড়েছে। এছাড়া লেনদেনের শীর্ষ ১০-এ থাকা অন্য কোম্পানিগুলোর মধ্যে রয়েছে ফু ওয়াং সিরামিক লিমিটেড, পাওয়ার গ্রিড কোম্পানি অব বাংলাদেশ লিমিটেড, বীকন ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড, স্কয়ার ফার্মা, রবি আজিয়াটা, জেনেক্স ইনফোসিস, লাফার্জহোলসিম ও এসএস স্টিল লিমিটেড।

এদিকে ১০ শতাংশ বেড়ে দর বৃদ্ধির শীর্ষে ছিল বারাকা পতেঙ্গা পাওয়ার লিমিটেড। গ্লোবাল ইন্স্যুরেন্সের ৯ দশমিক ৯৮ শতাংশ, বীকন ফার্মার ৯ দশমিক ৯৪ শতাংশ, সেন্ট্রাল ইন্স্যুরেন্সের ৯ দশমিক ৪৭ শতাংশ, ইসলামী ইন্স্যুরেন্সের ৯ দশমিক ১০ শতাংশ ও পূরবী জেনারেল ইন্স্যুরেন্সের আট দশমিক ১৩ শতাংশ শেয়ারদর বেড়েছে।

অন্যদিকে চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান সূচক সিএসসিএক্স ১১৭ দশমিক ২১ পয়েন্ট বা এক দশমিক শূন্য ছয় শতাংশ বেড়ে ১১ হাজার ১৪৭ দশমিক ৬৬ পয়েন্টে এবং সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ১৯০ দশমিক ২১ পয়েন্ট বা এক দশমিক শূন্য তিন শতাংশ বেড়ে ১৮ হাজার ৫৬৯ দশমিক ৭৬ পয়েন্টে অবস্থান করে। সিএসইতে ৩১৩টি কোম্পানির শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট লেনদেন হয়েছে। দর বেড়েছে ১৩৮টির, কমেছে ১৪৮টির এবং ২৭টির দর অপরিবর্তিত ছিল। সিএসইতে লেনদেন হয়েছে ৪৪ কোটি ১৪ লাখ ৭৫ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। আগের কার্যদিবসে লেনদেন হয়েছিল ৭১ কোটি ৭৯ লাখ ৭১ হাজার টাকার শেয়ার ও মিউচুয়াল ফান্ডের ইউনিট। এ হিসাবে লেনদেন কমেছে ২৭ কোটি ৬৫ লাখ টাকা।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..