শোবিজ

এবার অ্যামনেস্টির উদ্যোগে গাল্লিবয় জুটির গান

শোবিজ ডেস্ক:গাল্লিবয় জুটি তবীব ও রানা মৃধা। এবার মানবাধিকারবিষয়ক আন্তর্জাতিক বেসরকারি সংস্থা অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের উদ্যোগে তাদের নতুন গান প্রকাশ হলো। ইংরেজি সাবটাইটেলসহ প্রকাশ হওয়া বাংলা গানটির দুটি পঙ্ক্তি আজকের সব শিশু শিক্ষার আলো পেলে আগামীর পৃথিবীর ঝলমলে রূপ, অন্যথা ভুল হবে অন্যায় বেড়ে যাবে পাপীদের দাবানলে রবে নিশ্চুপ। গত শুক্রবার আন্তর্জাতিক শিক্ষা দিবস উপলক্ষে সংস্থাটির ফেসবুক পেইজে এর মিউজিক ভিডিওটি প্রকাশিত হয়। এটি মূলত বাংলাদেশে থাকা রোহিঙ্গা ও স্থানীয় সব শিশুর শিক্ষার প্রতি সমর্থন জানাতে দেশের জনগণ ও বিশ্ববাসীর কাছে আবেদন জানানো হয়েছে। গানটির শিল্পী ও গীতিকার মাহমুদ হাসান তবীব বলেন, মানবতা কোনো জাতি কিংবা সীমানার প্রাচীরে বাধা নয়। তাই নির্যাতিত রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষার জন্য কাজ করাটা সবার দায়িত্ব। এ বিশ্বাসবোধ থেকে রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষার জন্য এ গানটি গাওয়া। আর অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল নির্যাতিত রোহিঙ্গা শিশুদের শিক্ষাদানের জন্য কাজ করছে জেনে এ সংস্থাটির সঙ্গে কাজ করতে উদ্বুদ্ধ হয়েছি।

অন্যদিকে অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনালের দক্ষিণ এশিয়ার ক্যাম্পেইনার সাদ হাম্মাদি বলেন, মিয়ানমার সেনাবাহিনীর মানবতাবিরোধী অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডের কারণে প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গা শরণার্থী দেশটি থেকে পালিয়েছেন। এদের মধ্যে প্রায় পাঁচ লাখ ১৮ বছরের কম বয়সী শিশু। যারা কক্সবাজারের ক্যাম্পে বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত রয়েছেন। আর কক্সবাজার এলাকায় প্রাথমিক স্কুলে ভর্তির হার দেশের সর্বনিম্ন ৭১ শতাংশ এবং ঝরে পড়ার হার দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ৩১ শতাংশ। তিনি আরও বলেন, শিক্ষার সঙ্গে প্রত্যাবাসনের কোনো বিরোধ নেই। বরং যথাযথ ভাষায় মানসম্মত ও স্বীকৃত কারিকুলামে দেওয়া শিক্ষা রোহিঙ্গা শিশুদের নিজেদের অধিকার আদায়ে যোগ্য করে গড়ে তুলতে পারে। এতে তারা সমাজ ও অর্থনীতিতে অবদান রাখতে পারবে। উল্লেখ্য, গাল্লিবয় রানার উত্থান যেন রূপকথার মতোই। কামরাঙ্গীরচরের ৮ নম্বর গলিতে বেড়ে ওঠা রানাকে নিয়ে প্রথম গান গাল্লিবয় প্রকাশ করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী মাহমুদ হাসান তবীব। এরপর এ জুটি গাল্লিবয় পার্ট-টু ও পার্ট-থ্রি, হিপহপ পুলিশ প্রভৃতি গান প্রকাশ করা হয়। আর প্রতিটি গানই মিলিয়ন ভিউ ছুঁয়েছে ইউটিউবে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..