বিশ্ব বাণিজ্য

এবার ইরানের জাহাজশিল্পে নতুন নিষেধাজ্ঞা যুক্তরাষ্ট্রের

শেয়ার বিজ ডেস্ক: এবার ইরানের জাহাজশিল্পের ওপর নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে যুক্তরাষ্ট্র। এর আওতায় কয়েকটি তেল ট্যাংকার, তেল কোম্পানি এবং ইন্স্যুরেন্স প্রতিষ্ঠান নিষেধাজ্ঞার মধ্যে পড়ে যাবে। যুক্তরাষ্ট্রের অভিযোগ, এসব ট্যাংকার এবং কোম্পানি সিরিয়ায় লাখ লাখ ব্যারেল তেল সরবরাহ করছিল। এদিকে ইরানের ওপর যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার মধ্যেই দেশটিতে ৪০ হাজার কোটি ডলার বিনিয়োগের ঘোষণা দিয়েছে। খবর: পার্স টুডে।
যুক্তরাষ্ট্রের অর্থ মন্ত্রণালয় গত বুধবার ইরানের ১৬টি প্রতিষ্ঠান, ১০ জন ব্যক্তি এবং ১১টি তেল ট্যাংকারের ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা আরোপের ঘোষণা দেয়। ১০ ব্যক্তির মধ্যে ইরানের একজন সাবেক মন্ত্রী রয়েছেন। ইরানের ওপর সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে এ নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে বলে সংশ্লিষ্টরা মনে করছেন।
নিষেধাজ্ঞার আওতায় একটি ভারতীয় প্রতিষ্ঠান রয়েছে যাদের সঙ্গে ইরানের আদ্রিয়ান দারিয়া-১ তেল ট্যাংকারের স্বার্থ জড়িত। ট্যাংকারটি জিব্রাল্টার প্রণালি থেকে ব্রিটিশ মেরিন সেনারা আটক করে। পরে গত এবং জুলাইয়ে মুক্তি দেয়। এর আগে গত মঙ্গলবার ইরানের মহাকাশ গবেষণা সংস্থার ওপরে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে আমেরিকা।
ইরানবিষয়ক মার্কিন বিশেষ প্রতিনিধি ব্রায়ান হুক বলেছেন, ইরানের সঙ্গে বাণিজ্যের ব্যাপারে যে দেড় হাজার কোটি ডলারের ঋণ প্রস্তাব করেছে ফ্রান্স, সে ব্যাপারে কোনো ছাড় দেবে না যুক্তরাষ্ট্র। তিনি বলেন, কোনোভাবেই সর্বোচ্চ চাপ প্রয়োগের এ নীতি বাদ দেওয়া হবে না। কাউকে নিষেধাজ্ঞা ছাড় দেওয়া হবে না বলেও জানিয়েছেন তিনি।
এদিকে ইরান এবং চীনের মধ্যে ২০১৬ সালে যে ২৫ বছরের বিনিয়োগ চুক্তি হয়েছিল তা হালনাগাদ করে বিনিয়োগের পরিমাণ ৪০ হাজার কোটি ডলার নির্ধারণ করা হয়েছে। শিল্পসংক্রান্ত মাসিক প্রকাশনা পেট্রোলিয়াম ইকোনমিস্ট এ খবর প্রকাশ করেছে। গত মাসের শেষদিকে ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ চীন সফর করেন এবং শেষ সময় এ চুক্তি হালনাগাদ করা হয়। সে সময় চীনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং স্টেট কাউন্সিলর ওয়াং ই ইরান ও চীনকে ‘কম্প্রিহেনসিভ স্ট্র্যাটেজিক পার্টনার’ বলে অভিহিত করেন।।

সর্বশেষ..