বিশ্ব সংবাদ

এবার রোহিঙ্গাদের পক্ষে জাতিসংঘ আদালতে মালদ্বীপ

শেয়ার বিজ ডেস্ক : রাখাইনে রোহিঙ্গা গণহত্যায় মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে (আইসিজে) লড়ছে গাম্বিয়া। তাদের সঙ্গে আনুষ্ঠানিকভাবে এ লড়াইয়ে যোগ দিচ্ছে মালদ্বীপ। রোহিঙ্গাদের পক্ষে ন্যায়বিচার চাইতে দ্বীপরাষ্ট্রটি আইনজীবী হিসেবে নিয়োগ দিয়েছে ব্রিটিশ মানবাধিকারকর্মী আমাল আলাম ক্লুনিকে। গত মঙ্গলবার মালদ্বীপ সরকারের পক্ষ থেকে এ ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। খবর: বিবিসি।

মালদ্বীপের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুল্লাহ শাহিদ এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, ‘আইসিজে’তে গাম্বিয়ার সঙ্গে একত্রে রোহিঙ্গাদের পক্ষে মামলার কার্যক্রম চালাবে তারা।’ মালদ্বীপের প্রস্তাব পেয়ে আমাল ক্লুনি বলেন, মিয়ানমারে সংঘটিত গণহত্যার জবাবদিহির বিষয়টি দীর্ঘ সময় ধরে ঝুলে আছে। আমি রোহিঙ্গাদের ন্যায়বিচার পাওয়ার জন্য এ গুরুত্বপূর্ণ প্রচেষ্টার অংশ হতে মুখিয়ে আছি।

রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগ এনে গত বছরের নভেম্বরে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের আদালতে মামলা করে আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়া। সে মামলা শুনানিতে গড়ালে গাম্বিয়ার পক্ষে নেতৃত্ব দেন দেশটির বিচারবিষয়কমন্ত্রী আবুবকর তামবাদু। অন্যদিকে মিয়ানমারের পক্ষে শুনানিতে অংশ নেন দেশটির নোবেলজয়ী নেত্রী অং সান সু চি।

শুনানির পর গত ২৩ জানুয়ারি আইসিজে এক অন্তর্বর্তীকালীন আদেশ দেন। ওই চার অন্তর্বর্তী আদেশের মাধ্যমে মিয়ানমারে রোহিঙ্গাদের সুরক্ষার নির্দেশ দেন। অন্তর্বর্তী আদেশ ঘোষণা হলেও বিচারাধীন ওই মামলার চূড়ান্ত রায়ের জন্য নিরলস লড়ছে আফ্রিকার দেশ গাম্বিয়া। তাদের সে লড়াইয়ে মালদ্বীপের অংশগ্রহণ রোহিঙ্গাদের ন্যায়বিচার প্রাপ্তির সম্ভাবনাকে আরও উজ্জ্বল করবে বলে মনে করা হচ্ছে। মালদ্বীপ আইনজীবী হিসেবে যাকে নিয়োগ দিয়েছে, সে আমাল আলামু বিশ্বের বিভিন্ন দেশের বড় বড় মামলার আইনজীবী বা পরামর্শক হিসেবে লড়ে ফল পাইয়ে দিয়েছেন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..