প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

এলডিসি থেকে উত্তরণের কৌশল নিয়ে সিপিডির আলোচনা

শেয়ার বিজ ডেস্ক: ১৮ সালে স্বল্পোন্নত দেশ বা এলডিসি থেকে উত্তরণের জন্য বাংলাদেশের নাম প্রস্তাব হওয়ার বিষয়টি প্রায় নিশ্চিতই বলা চলে। সে হিসেবে বাংলাদেশ ২০২৪ সালে এ তালিকা থেকে বেরিয়ে আসবে। ফলে বিষয়টি বর্তমানে সরকারের একটি গুরুত্বপূর্ণ এজেন্ডা হিসেবে বিবেচিত হচ্ছে। এ উত্তরণের প্রক্রিয়াকে মসৃণ ও টেকসই করার কৌশল নিয়ে সংশ্লিষ্ট বিভিন্ন মহলে আলোচনাও চলছে। এ উদ্দেশ্যকে সামনে রেখে সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি) সরকারি কর্মকর্তাদের সঙ্গে ‘বাংলাদেশের স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উত্তরণের কৌশল’ শীর্ষক একটি মতবিনিময় সভার আয়োজন করে। গতকাল সংস্থাটির এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এ তথ্য জানানো হয়।

সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়, সংস্থা এবং প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটের ২৭ জন জ্যেষ্ঠ ও মধ্যম পর্যায়ের কর্মকর্তা আলোচনায় অংশ নেন। ‘স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে উত্তরণ: বাংলাদেশ কি মসৃণ উত্তরণ প্রক্রিয়ার জন্য প্রস্তুত?’ শীর্ষক উপস্থাপনার মধ্য দিয়ে আলোচনার সূত্রপাত হয়। এরপর দলগত আলোচনার মাধ্যমে অংশগ্রহণকারী কর্মকর্তারা বাংলাদেশের উত্তরণ প্রক্রিয়া-সম্পর্কিত বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ বিষয় তুলে ধরেন। মূলত উত্তরণ প্রক্রিয়ার জন্য প্রয়োজনীয় কাঠামোগত রূপান্তর, টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট বা এসডিজির সঙ্গে উত্তরণ প্রক্রিয়ার সম্পর্ক, বিভিন্ন বাহ্যিক বৈরী চ্যালেঞ্জ, আন্তর্জাতিক সহযোগিতা এবং উত্তরণের ক্ষেত্রে সুবিধা-অসুবিধাগুলো বিবেচনায় নিয়ে নানামুখী আলোচনা হয়।

সিপিডির নির্বাহী পরিচালক অধ্যাপক মোস্তাফিজুর রহমান, ফেলো ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য, সংলাপ ও যোগাযোগ পরিচালক আনিসাতুল ফাতেমা ইউসুফ, গবেষণা পরিচালক ড. ফাহমিদা খাতুন, অতিরিক্ত গবেষণা পরিচালক ড. খন্দকার গোলাম মোয়াজ্জেম এবং গবেষণা ফেলো তৌফিকুল ইসলাম খান এ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।