এলডিসি-পরবর্তী সময়ে জাতিসংঘের সহায়তা চায় এফবিসিসিআই

শেয়ার বিজ ডেস্ক: জাতিসংঘের এলডিসি উত্তরণ-পরবর্তী সময়ে দেশের বেসরকারি খাতকে যেসব চ্যালেঞ্জের মধ্যে পড়তে হবে তা মোকাবিলায় জাতিসংঘের সহায়তা চেয়েছেন এফবিসিসিআই সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন। বিশেষ করে দক্ষতা বৃদ্ধিতে জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থার কাছে করিগরি সহায়তা চান তিনি। তিনি মনে করেন, এতে এলডিসি-পরবর্তী চ্যালেঞ্জ মোকাবিলার পাশাপাশি এসডিজি অর্জনও সহজ হবে। গতকাল এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বৃহস্পতিবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে, আয়োজিত ‘নিউ ওয়ার্ল্ড, নিউ হোপ: জাতিসংঘ ও বাংলাদেশ’ শীর্ষক সম্মেলনে এসব কথা বলেন এফবিসিসিআই সভাপতি মো. জসিম উদ্দিন। নিউইয়র্ক পুলিশ ডিপার্টমেন্টের সহায়তায় জাতিসংঘের ৭৬তম সাধারণ অধিবেশনের সাইড লাইনে আয়োজিত এ সম্মেলনের আয়োজন করে সেন্টার ফর নন রেসিডেন্স বাংলাদেশিজ।

কভিড মহামারি দেশের অর্থনীতিতে কঠিন আঘাত হেনেছে জানিয়ে এফবিসিসিআই সভাপতি বলেন,  দারিদ্র্য বিমোচন, শিশু ও মাতৃমৃত্যুহার কমানো, গড় আয়ু বৃদ্ধি, সম্প্রসারিত টিকাদান কর্মসূচি (ইপিআই), মাথাপিছু গড় আয় বৃদ্ধি, অর্থনৈতিক স্থিতিশীলতা, টেকসই প্রবৃদ্ধিসহ আর্থ-সামাজিক সব সূচকে অগ্রগতি অব্যাহত রাখার মাধ্যমে বাংলাদেশ এসডিজি অর্জন করতে সক্ষম হবে।

সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সিনিয়র সহসভাপতি মোস্তফা আজাদ চৌধুরী বাবু, সহসভাপতি মো. আমিনুল হক, সালাহউদ্দিন আলমগীর, এমএ রাজ্জাক খান, চেজ পাওয়ার লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এএম নাঈমুর রহমান, বায়রার সাবেক সভাপতি বেনজীর আহমেদ, এফবিসিসিআইয়ের পরিচালক মো. রেজাউল করিম রেজনু, মোহাম্মাদ আনোয়ার সাদাত সরকার, তাবারাকুল তোসাদ্দেক হোসাইন খান, মোহাম্মেদ বজলুর রহমান, মোহাম্মদ আলী খোকন, শমি কায়সার, আলমগীর শামসুল আলামিন, মো. নাসের, নাজ ফারাহানা আহমেদ, সৈয়দ সাদাত আলমাস কবীর, মোহাম্মাদ রিয়াদ আলী, যশোধা জীবন দেব নাথ প্রমুখ।

সর্বশেষ..