বিশ্ব বাণিজ্য

এশিয়ায় শীর্ষ ধনীর খেতাব হারালেন মুকেশ আম্বানি

তেল ব্যবসায় ধস

শেয়ার বিজ ডেস্ক: এশিয়ার শীর্ষ ধনীর খেতাব হারিয়েছেন ভারতের ধনকুবের শিল্পপতি মুকেশ আম্বানি। গতকাল মঙ্গলবার ব্লুমবার্গ বিলিয়নেয়ার্স ইনডেক্সে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, তাকে টপকে শীর্ষস্থান ফিরে পেয়েছেন ই-কমার্স জায়ান্ট ‘আলিবাবা’ গ্রুপের প্রতিষ্ঠাতা জ্যাক মা। জ্বালানি তেলের পড়তি দামের কারণে সোমবার আম্বানির রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজের শেয়ারদর কমে গেছে ১২ শতাংশ। অর্থাৎ এক দিনে আম্বানি হারিয়েছেন ৫৮০ কোটি ডলার। আর এ কারণে তাকে ছাড়িয়ে গেছেন জ্যাক মা। খবর: হিন্দুস্তান টাইমস।

চীনের উহান থেকে বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের প্রভাবে বিশ্ব অর্থনীতিতে মন্দাভাব দেখা দিয়েছে। এতে কমেছে তেলের চাহিদা। এদিকে সৌদি আরব ও রাশিয়ার মধ্যে শুরু হওয়া মূল্যযুদ্ধে গত সোমবার তেলের দামে এক দিনের হিসাবে ২৯ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বড় দরপতন হয়েছে। এদিন পুঁজিবাজারে ব্যাপক দরপতন হয়েছে। ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, এ দুই ঘটনার প্রভাবেই রিলায়্যান্স ইন্ডাস্ট্রিজের কর্ণধার মুকেশের মোট সম্পদের পরিমাণ এক দিনে কমে গেছে ৫৮০ কোটি ডলার। সোমবার রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের শেয়ারের দাম কমেছে প্রায় ১২ শতাংশ। আর চলতি বছরে তাদের শেয়ারের দর কমেছে প্রায় ২৬ শতাংশ।

এতে সম্পদের হিসেবে জ্যাক মা আম্বানির চেয়ে ২৬০ কোটি ডলার এগিয়ে গেছেন। এর আগে ২০১৮ সালের মাঝামাঝি আম্বানির কাছে এশিয়ার শীর্ষ ধনীর শিরোপা হারিয়েছিলেন জ্যাক মা। মোট চার হাজার ৪৫০ কোটি ডলার মূল্যমানের সম্পদের মালিক জ্যাক মা সেই হারানো শিরোপাই ফিরে পেলেন।

তিন দশকের মধ্যে তেলের দাম সর্বনিম্ন আর বিশ্বে করোনাভাইরাসের সংক্রমণে তীব্র আর্থিক মন্দার আশঙ্কা ঘনীভূত হয়েছে। ১৯৯১ সালের জানুয়ারির পর এবার সর্বোচ্চ দরপতন হয়েছে তেলের বাজারে।

চীন থেকে করোনাভাইরাসের উৎপত্তি সেই দেশের প্রতিষ্ঠান হয়েও আলিবাবার ব্যবসায় অর্থনৈতিক মন্দার প্রভাব কম পড়েছে। এই প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন ব্যবসার মধ্যে বিশ্বজুড়ে ক্লাউড কম্পিউটিং আর মোবাইল অ্যাপসের ব্যবসা অন্যতম। সেই ব্যবসায় করোনার তেমন একটা প্রভাব পড়েনি। আর তাই ক্ষতি কম হয়েছে তাদের।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..