কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

এশিয়া ইন্স্যুরেন্সের ১০ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা

নিজস্ব প্রতিবেদক: ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর সমাপ্ত হিসাববছরে বিনিয়োগকারীদের নিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে এশিয়া ইন্স্যুরেন্স লিমিটেড। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

প্রাপ্ত তথ্যমতে, ৩১ ডিসেম্বর ২০১৯ সমাপ্ত হিসাববছরে কোম্পানিটি ১০ শতাংশ নগদ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। আলোচিত সময়ে শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে এক টাকা ৬০ পয়সা এবং ৩১ ডিসেম্বর শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে ১৯ টাকা ৫০ পয়সা। আগের বছর একই সময় ছিল যথাক্রমে এক টাকা ৪১ পয়সা ও ১৮ টাকা ৯৫ পয়সা। আর এই হিসাববছরে শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ হয়েছে দুই টাকা ৭১ পয়সা, আগের বছর যা ছিল দুই টাকা ৭৮ পয়সা। ঘোষিত লভ্যাংশ বিনিয়োগকারীদের সম্মতিক্রমে অনুমোদনের জন্য আগামী ২০ সেপ্টেম্বর দুপুর ১২টায় অনলাইনে বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হবে। এজন্য রেকর্ড ডেট নির্ধারণ করা হয়েছে ৯ আগস্ট।

চলতি হিসাববছরের প্রথম প্রান্তিক (জানুয়ারি-মার্চ, ২০২০) প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। আর প্রথম প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি আয় হয়েছে ৬০ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ৫৪ পয়সা। এছাড়া ২০২০ সালের ৩১ মার্চ শেয়ারপ্রতি সম্পদমূল্য দাঁড়িয়েছে ২০ টাকা ৯ পয়সা, যা ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বরে ছিল ১৯ টাকা ৪৮ পয়সা। আর এই প্রান্তিকে শেয়ারপ্রতি নগদ অর্থপ্রবাহ দাঁড়িয়েছে দুই টাকা ৯ পয়সা, আগের একই সময়ে ছিল এক ৮৯ পয়সা।

এদিকে সর্বশেষ কার্যদিবসে কোম্পানিটির শেয়ারদর ২ দশমিক ৭৫ শতাংশ বা ৫০ পয়সা বেড়ে প্রতিটি সর্বশেষ ১৮ টাকা ৭০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ১৮ টাকা ৮০ পয়সা। ওইদিন কোম্পানিটির এক কোটি ৫৯ লাখ ৬০ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দিনজুড়ে ৮ লাখ ৪৮ হাজার ৭৮৭টি শেয়ার মোট ৬৪০ বার হাতবদল হয়। ওইদিন শেয়ারদর সর্বনিন্ম ১৮ টাকা ২০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ১৯ টাকা ৩০ পয়সায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে কোম্পানির শেয়ারদর ১৪ টাকা ৪০ পয়সা থেকে ৩১ টাকা ১০ পয়সায় ওঠানামা করে।

সর্বশেষ বার্ষিক প্রতিবেদন ও বাজারদরের ভিত্তিতে শেয়ারের মূল্য আয় অনুপাতে ১৩ দশমিক ৩৩ এবং অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদনের ভিত্তিতে ১০ দশমিক ২২।

‘এ’ ক্যাটেগরির বিমা খাতের কোম্পানিটি ২০০৯ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। ১০০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন ৪৭ কোটি ছয় লাখ ৯০ হাজার টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ ১৮ কোটি ৮৫ লাখ ৯০ হাজার টাকা। কোম্পানিটির চার কোটি ৭০ লাখ ৬৯ হাজার ৮৫৮ শেয়ার রয়েছে। মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা বা পরিচালকদের কাছে ৪৪ দশমিক ৯৩ শতাংশ, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে ১২ দশমিক শূন্য তিন শতাংশ এবং সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে রয়েছে ৪৩ দশমিক শূন্য চার শতাংশ শেয়ার।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..