প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

ওটা কেমিক্যালের পর্ষদ সভা বৃহস্পতিবার

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: পরিচালনা পর্ষদ সভার তারিখ ঘোষণা করেছে তালিকাভুক্ত কোম্পানি ওটা কেমিক্যালস লিমিটেড। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সূত্রমতে, ওষুধ ও রসায়ন খাতের  ওটা কেমিক্যালসের পরিচালনা পর্ষদ সভা বৃহস্পতিবার বিকাল সোয়া ৪টায় অনুষ্ঠিত হবে। সভায় ৩০ সেপ্টেম্বর ২০১৬ পর্যন্ত প্রথম প্রান্তিকের অনিরীক্ষিত আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করা হবে।

উল্লেখ্য, বস্ত্র খাতের কোম্পানিটি ১৯৯২ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়। গতকাল কোম্পানিটির শেয়ারদর আগের দিনের চেয়ে ৫ দশমিক ২৪ শতাংশ বা আট টাকা ৮০ পয়সা কমে প্রতিটি শেয়ার সর্বশেষ ১৫৯ টাকা ১০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দর ছিল ১৬০ টাকা ৭০ পয়সা। দিনজুড়ে ৪৩ হাজার ৬২৪টি শেয়ার ২৭৯ বার হাতবদল হয়, যার বাজারদর ৭১ লাখ ৬১ হাজার টাকা। শেয়ারদর সর্বনিম্ন ১৫৯ টাকা ১০ পয়সা থেকে সর্বোচ্চ ১৭০ টাকা ৯০ পয়সায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে শেয়ারদর ১২৮ টাকা ২০ পয়সা থেকে ১৮৯ টাকা ২০ পয়সার মধ্যে ওঠানামা করে। ১৫ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন সাত কোটি ৮৯ লাখ ৮০ হাজার টাকা। রিজার্ভের পরিমাণ ৫০ কোটি ৩৫ লাখ টাকা। ২০১৪ সমাপ্ত হিসাববছরের আর্থিক প্রতিবেদন পর্যালোচনা করে বিনিয়োগকারীদের জন্য পাঁচ শতাংশ নগদ ও ২৫ শতাংশ বোনাসসহ মোট ৩০ শতাংশ লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে। ওই সময় শেয়ারপ্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে পাঁচ টাকা ৭৯ পয়সা এবং শেয়ারপ্রতি প্রকৃত সম্পদমূল্য (এনএভি) দাঁড়িয়েছে  ৯৭ টাকা ৩২ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ছয় টাকা ১৩ পয়সা ও ১১৯ টাকা ৮৩ পয়সা। ওই সময় কর-পরবর্তী মুনাফা করেছে তিন কোটি ৬৫ লাখ ৭০ হাজার টাকা। এটি আগের বছর একই সময় ছিল দুই কোটি ৯৭ লাখ ৮০ হাজার টাকা। তৃতীয় প্রান্তিকে (জানুয়ারি-মার্চ ১৬) ইপিএস হয়েছে এক টাকা পাঁচ পয়সা। এটি আগের বছর একই সময় ছিল ৯৫ পয়সা। ইপিএস বেড়েছে ১০ পয়সা। ৩০ মার্চ ২০১৬ পর্যন্ত এনএভি ছিল ৮২ টাকা ৫১ পয়সা, যা আগের বছর একই সময় ছিল ৭৮ টাকা ৮০ পয়সা।

কোম্পানির ৭৮ লাখ ৯৭ হাজার ৫০০টি শেয়ার রয়েছে।

ডিএসইর সর্বশেষ তথ্যমতে, মোট শেয়ারের মধ্যে ৩৯ দশমিক ৪৭ শতাংশ শেয়ার রয়েছে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের কাছে, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীদের কাছে ৩৩ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে রয়েছে ২৭ দশমিক ৪৪ শতাংশ শেয়ার।