ওমিক্রন সংক্রমিত দেশ থেকে আপাতত না ফেরার আহ্বান

নিজস্ব প্রতিবেদক: আফ্রিকা ও ইউরোপের যেসব দেশে কভিড-১৯-এর নতুন ধরন ওমিক্রন ছড়িয়ে পড়েছে, সেসব দেশে অবস্থানরত বাংলাদেশি নাগরিকদের আপাতত দেশে না ফেরার জন্য আহ্বান জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।

গতকাল দুপুরে কভিড-১৯ পরিস্থিতি নিয়ে আয়োজিত ভার্চুয়াল স্বাস্থ্য বুলেটিনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মুখপাত্র অধ্যাপক ডা. নাজমুল ইসলাম এ আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ‘প্রবাসী ভাই-বোনেরা যারা এ সময় দেশে আসতে চান, যারা দক্ষিণ আফ্রিকা বা ইউরোপে আছেন, বিশেষ করে যেসব দেশে ওমিক্রনের ভ্যারিয়েন্টটি অধিক সংখ্যায় শনাক্ত হচ্ছে, তাদের প্রতি আমাদের বিনীত অনুরোধ থাকবে, আপনারা ভ্রমণ পরিকল্পনা আপাতত স্থগিত রাখুন। পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত ভ্রমণ পরিকল্পনা একেবারে বন্ধ রাখুন। এই কাজটি করলে প্রত্যক্ষ-পরোক্ষভাবে আমাদের সারাদেশে করোনা রোধে যে সর্বোচ্চ চেষ্টাটি আছে, সেটা বেগবান হবে।’

নাজমুল ইসলাম বলেন, ‘বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ওমিক্রনকে ‘ভ্যারিয়েন্ট অব কনসার্ন’ হিসেবে ঘোষণা করেছে। এটা সম্পর্কে প্রতিনিয়ত আমরা নতুন তথ্য-উপাত্ত পাচ্ছি। এদিকে আমাদের গভীর মনোযোগ আছে এবং সরকার এই পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য সব প্রাক-প্রস্তুতি এরই মধ্যে সম্পন্ন করেছে। আমরা মনে করি, এই মুহূর্তে ভ্রমণ সংক্রমণের ঝুঁকি বাড়িয়ে দিতে পারে। এই সংক্রমণের ঝুঁকি থেকে দেশবাসীকে রক্ষা করার জন্য পরিস্থিতির সঙ্গে মিল রেখে আমাদের বিভিন্ন সিদ্ধান্ত গ্রহণ করতে হচ্ছে। বন্দরগুলোয় আমরা সতর্কতা দিয়েছি। কোয়ারেন্টাইনের বিধি-নিষেধ শিথিল করা হয়েছিল, সেটি আর শিথিল নেই। কোয়ারেন্টাইনের বিধিনিষেধ আমরা কঠোরভাবে প্রতিপালনের নির্দেশনা দিয়েছি।’

এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে যারা এসেছেন, স্থানীয় প্রশাসনের সহযোগিতা নিয়ে আমরা তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করছি, তাদের চিহ্নিত করছি। যাদের পরীক্ষার দরকার তাদের পরীক্ষা করছি। সামগ্রিকভাবে এই মুহূর্ত পর্যন্ত সার্বিক পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আছে, আতঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই।’

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন   ❑ পড়েছেন  ৯১২৯  জন  

সর্বশেষ..