স্পোর্টস

ওয়ানডে খেলবেন না মাহমুদউল্লাহ!

ক্রীড়া প্রতিবেদক : অফ ফর্মের কারণে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঘরের মাঠে একমাত্র টেস্ট সিরিজের দল থেকে বাদ পড়েছেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। তবে এ অলরাউন্ডার নির্বাচকদের ভাবনায় ঠিকই রয়েছেন ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টিতে, যে কারণে আগামী এপ্রিলে পাকিস্তান সফরে একমাত্র ওয়ানডে খেলবেন তিনি, এটা নিশ্চিতভাবে বলাই যায়। কিন্তু তার আগেই এ ডানহাতি এ ম্যাচটি না খেলার আভাস দিয়েছেন। এমনটাই জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু।

মৌখিকভাবে এখনও মাহমুদুল্লাহ তৃতীয় ধাপে পাকিস্তান সফরে না যাওয়ার কথা বলেননি। তবে অনিশ্চতায় কথা জানিয়েছে। যদি তিনি লিখিতভাবে বোর্ডের কাছে ছুটির আবেদন করেন, তবে বোর্ড বিষয়টি ভেবে দেখবে বলে জানিয়েছেন নান্নু‘ওই সময় মাহমুদুল্লাহর স্ত্রীর সন্তান হওয়ার কথা। সে সন্তানসম্ভবা স্ত্রীর পাশে থাকতে চায়। তার সঙ্গে আলোচনার সময় সে বিষয়টি মৌখিকভাবে জানিয়েছে। এ কারণে সে পাকিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র ওয়ানডে সিরিজে অনিশ্চিত। যদিও ছুটি নিতে গেলে তাকে লিখিত আবেদন করতে হবে।’

পাকিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র ওয়ানডে ম্যাচটি মাঠে গড়ানোর কথা আগামী ৩ এপ্রিল। এর দুই দিন পর মাঠে গড়াবে তৃতীয় দফায় সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টটি। জাতীয় দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো এরই মধ্যে মাহমুদুল্লাহকে জানিয়ে দিয়েছেন, তিনি টেস্টের চিন্তায় নেই। ওদিকে আবার বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন আগেই জানিয়ে দিয়েছেন, ছুটি নিতে হলে ক্রিকেটারদের ছয় মাস আগে বলতে হবে।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্টে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে দলে না রাখা নিয়ে মিনহাজুল আবেদীনের ব্যাখ্যা ছিল এরকমÑ‘আমরা মনে করছি লাল বলের ক্রিকেট থেকে মাহমুদউল্লাহর বিরতি প্রয়োজন।’

এদিকে ক্রিকেট পাড়ায় গুঞ্জন ছড়িয়েছে, রাওয়ালপিন্ডি টেস্ট শেষে প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো মাহমুদউল্লাহর টেস্ট ভবিষ্যৎ নিয়ে সরাসরি কথা বলেছেন। আলোচনায় কোচ মাহমুদউল্লাহকে শুধু সাদা বলের ক্রিকেটে মনোযোগ দেওয়ার কথা বলেছেন। পাশাপাশি তাকে জানিয়ে দেওয়া হয়, টেস্ট ক্রিকেটে সামনের ম্যাচগুলোতে তাকে বিবেচনা করা হবে না! কিন্তু এসব কিছুই সত্য নয় বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচক‘কোচ তাকে এমন কিছু বলেননি। অবসর নিয়ে কোনো কথা হয়নি আমাদের সঙ্গে। আমরা ছিলাম, কী কথা হয়েছে সেটা আমরা জানি। সুতরাং এরকম কিছুই হয়নি।’

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..