স্পোর্টস

কঠিন মিশনে বাংলাদেশ ক্রীড়া প্রতিবেদক

দিন দুয়েক আগেই শেষ হয়েছে টি-টোয়েন্টি সিরিজ। কিন্তু বিশ্রাম নেওয়ার সুযোগ নেই বাংলাদেশ দলের। কেননা, আগামীকালই যে শুরু হচ্ছে কঠিন মিশন টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ। প্রতিপক্ষ সেই ভারত। যারা এ ফরম্যাটে ‘নাম্বার ওয়ান’ দল। যে কারণে সফরকারীদের চিন্তা একটু বেশিই।

আগে ১১৫টি টেস্ট ম্যাচ খেললেও এই প্রথমবারের মতো টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের লড়াইয়ে নামছে বাংলাদেশ। টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ মানে টেস্ট খেলুড়ে ১০ দেশের মধ্যে (আফগানিস্তান ও আয়ারল্যান্ড এ লড়াইয়ে নেই) সেরা হওয়ার লড়াই। দুবছর ধরে চলবে এ প্রতিযোগিতা। সেখানে পয়েন্টের শীর্ষে থাকা দলের হাতেই উঠবে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ট্রফি।

নতুন আঙ্গিকের টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে লড়াইয়ের আগে বাংলাদেশের চিন্তার নাম ব্যাটিং। এই তো দুদিন আগেই এ বিভাগে ব্যর্থতার জন্যই তো ভারতের মাটিতে প্রথমবার কোনো সিরিজ জয়ের সুযোগ হাতছাড়া করেছেন মুশফিকুর রহিমরা। তাই গতকাল ব্যাটসম্যানদের নিয়ে আলাদা করেই সময় ব্যয় করেছেন বাংলাদেশের ব্যাটিং কোচ নিল ম্যাকেঞ্জি।

ভারত তাদের মাটিতে শেষ ১০ টেস্টের ৭টিতেই জিতেছে। বাকি তিনটি ড্র হয়েছে। সর্বশেষ সিরিজে দক্ষিণ আফ্রিকাকে তারা হারিয়েছে ৩-০ ব্যবধানে; প্রায় একতরফাভাবে।

এখন পর্যন্ত চলতি বছর তিনটি টেস্ট ম্যাচ খেলেছে বাংলাদেশ। কিন্তু সবকটিতেই হেরেছে টাইগাররা। এর মধ্যে চট্টগ্রামে সর্বশেষ টেস্টে আফগানিস্তানের কাছেও হেরেছে। অন্যদিকে এ বছর এখন পর্যন্ত ছয়টি টেস্ট খেলেছে ভারত। এর একটিতে ড্র এবং বাকি পাঁচটিতে সহজ জয় পেয়েছে তারা। এরই মধ্যে টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে ২৪০ পয়েন্ট তুলে নিয়ে বিরাট কোহলির দল আছে শীর্ষে।

টেস্ট সিরিজের প্রথম ম্যাচে আগামীকাল সকাল সাড়ে ১০টায় ইন্দোরে ভারতের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ। নিষেধাজ্ঞার কারণে এ সিরিজে নেই সাকিব আল হাসান। অন্যদিকে পারিবারিক কারণে নেই তামিম ইকবাল। অভিজ্ঞ এ দুই তারকার অভাব অবশ্য গেল টি-টোয়েন্টি সিরিজে হাড়ে হাড়ে টের পেয়েছে সফরকারীরা। টেস্টেও যে এর মাত্রাটা আরও বেশি হবেÑতা আগাম বলাই যায়।

দেশের বাইরে পেস বোলিং-সহায়ক উইকেটে ভারত এখন আর ভয় পায় না। ব্যাটিংয়ে বিরাট কোহলি, চেতেশ্বর পূজারা, অজিঙ্কা রাহানেরা সে ভয়কে জয় করেছেন। পেস বোলিংয়ে জাসপ্রিত বুমরাহ, মোহাম্মদ শামি, উমেশ যাদব কিংবা ইশান্ত শর্মারা নিদেদের প্রমাণ দিয়েছেন। ভারত তাই ঘরের মাঠেও এখন পেস-সহায়ক উইকেট বানায়। আগামীকাল ইন্দোরের উইকেটও হবে পেস-সহায়ক। তাই বলাই যায়: টাইগারদের কঠিন পরীক্ষায় ফেলবেন ভারতীয় পেসাররা। ইন্দোরের নেটে সে পরীক্ষার প্রস্তুতিটা নিতেই গতকাল মুশফিকদের সহায়তা করেছেন ম্যাকেঞ্জি, যা আরও করবেন তিনি। তারপরও কিন্তু প্রশ্নটা বড় আকারেই থেকে যাচ্ছে মাঠের ক্রিকেটে কতটা নিজেদের মেলে ধরতে পারবেন লিটন দাস-মাহমুদউল্লাহ রিয়াদরা।

বাংলাদেশ টেস্ট দল

মুমিনুল হক (অধিনায়ক)

সাদমান ইসলাম

ইমরুল কায়েস

সাইফ হাসান

লিটন দাস

মুশফিকুর রহিম

মাহমুদউল্লাহ

মোহাম্মদ মিঠুন

মোসাদ্দেক হোসেন

মেহেদী হাসান মিরাজ

তাইজুল ইসলাম

নাঈম হাসান

মোস্তাফিজুর রহমান

আল-আমিন হোসেন

আবু জায়েদ

এবাদত হোসেন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..