আজকের পত্রিকা সর্বশেষ সংবাদ সারা বাংলা

কবিরহাটে করোনায় অসহায়দের পাশে কামাল খাঁন

প্রতিনিধি, নোয়াখালী: করোনায় স্তব্ধ সারাদেশ। সাধারণ ছুটি ঘোষনা করেছে সরকার। সংক্রমণ রোধে মানুষকে ঘর থেকে বের হতে নিষেধ করা হচ্ছে। এর ফলে সবচেয়ে বেকায়দায় পড়েছেন শ্রমজীবী বা খেটে খাওয়া মানুষ। এ সব অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন ব্যবসায়ী কামাল খাঁন। তিনি নোয়াখালী জেলার নিজ উপজেলা কবিরহাটের ৩নং ধানসিঁড়ি ইউনিয়নে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন।

নিজ উদ্যোগে প্রায় পাঁচ শতাধিক পরিবারকে ত্রাণ সামগ্রী দিয়েছেন। বুধবার (৮ এপ্রিল) ইউনিয়নের বিভিন্ন ওয়ার্ডে কর্মহীন মানুষের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেন এ ব্যবসায়ী। কামাল খান ব্যবসা ছাড়াও তিনি জেলার একজন প্রথম শ্রেণির ঠিকাদার।

ধানসিঁড়ি ইউনিয়নের কৃতি সন্তান ব্যবসায়ী ও সমাজ সেবক ঠিকাদার কামাল খাঁনের ব্যক্তিগত উদ্যোগে এবং নিজ অর্থায়নে ত্রাণ সামগ্রী নিজেই ইউনিয়নের প্রত্যেক ওয়ার্ডে গিয়ে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে নিজ হাতে প্রত্যেক মানুষের হাতে এ ত্রাণ তুলে দেন। এসময় উপস্থিত ছিলেন, কবিরহাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মির্জা মো. হাসান, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি জহিরুল ইসলাম রিয়াদ, ধানসিঁড়ি ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি সোহাগ, সম্পাদক সাইফুল ইসলাম প্রমূখ।

ত্রাণের মধ্যে রয়েছে, প্রত্যেক পরিবারের জন্য ১০ কেজি চাল, দুই কেজি আলু, এক কেজি ডাল ও এক লিটার সয়াবিন তেল। করোনার সংক্রমণ শুরু হওয়ার পর থেকে তিনি নিজ উদ্যোগে নিজ এলাকার বহু মানুষকে দান করে আসছে। করোনা ছাড়াও সব সময় তিনি দান করে আসছেন।

কামাল খাঁন বলেন, আমি পরিশ্রম করে আজকে এই অবস্থানে এসেছি। আল্লাহ আমাকে যথেষ্ট দিয়েছে। তাই আমি সব সময় চেষ্টা করি অসহায় মানুষের জন্য কিছু করতে। দেশের এই ক্লান্তিলগ্নে যদি আমার মত সবাই ঘর বন্দী-কর্মহীন মানুষের পাশে না দাঁড়ায় তাহলে তারা যাবেন কোথায়। আমি প্রাথমিক পর্যায়ে পাঁচ শত পরিবারের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করেছি। পরবর্তীতে সাধ্যমত দান করার চেষ্টা করবো। তিনি নিজ নিজ এলাকায় সার্মথ্যবানদের এ দুযোর্গে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান।

###

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..