প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

কভিডে তিনজনের মৃত্যু, শনাক্ত ১৫ শতাংশ ছাড়াল

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে গত এক দিনে কভিড-১৯ শনাক্ত রোগীর সংখ্যা কিছুটা কমলেও শনাক্তের হার ফের ১৫ শতাংশ ছাড়িয়েছে, সেই সঙ্গে এসেছে তিনজনের মৃত্যুর খবর। নমুনা পরীক্ষার বিপরীতে শনাক্তের হার এর চেয়ে বেশি ছিল সবশেষ গত ১২ ফেব্রুয়ারি। গত প্রায় তিন মাসের মধ্যে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এক দিনে তিনজনের মৃত্যু আর হয়নি।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, শনিবার সকাল পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টায় ৮ হাজার ৪৯২টি নমুনা পরীক্ষা করে ১ হাজার ২৮০ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। আগের দিন শুক্রবার ১ হাজার ৬৮৫ জন আক্রান্তের খবর এসেছিল। নতুন রোগীদের নিয়ে দেশে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ১৯ লাখ ৬৩ হাজার ৪৯৩ জন। তাদের মধ্যে ২৯ হাজার ১৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এর আগে এক দিনে তিনজনের মৃত্যু হয়েছিল গত ২০ মার্চ। তারপর করোনাভাইরাসে মৃত্যু কমে এসেছিল। মাঝে টানা ২০ দিন কভিডে মৃত্যুহীন ছিল বাংলাদেশ। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষা অনুযায়ী শনাক্তের হার ১৫ দশমিক ০৭ শতাংশ। এর আগে গত ১২ ফেব্রুয়ারি শনাক্তের হার ছিল ১৬ দশমিক ৪৯ শতাংশ। গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে উঠেছেন আরও ১০২ জন কভিড রোগী। তাদের নিয়ে ১৯ লাখ ৬ হাজার ৫১৯ জন সেরে উঠলেন।

করোনাভাইরাসের নতুন ধরন ওমিক্রনের দাপট কমলে ফেব্রুয়ারির শেষ দিকে দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা হাজারের নিচে নেমে আসে। ধারাবাহিকভাবে কমতে কমতে এক পর্যায়ে ২৬ মার্চ তা একশর নিচে নেমে এসেছিল। গত ৫ মে দৈনিক শনাক্ত রোগীর সংখ্যা নেমেছিল ৪ জনে। শনাক্তের হার ১ শতাংশের নিচে ছিল বেশ কিছু দিন। তবে গত ২২ মের পর থেকে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা আবার বাড়ছে। ১১ সপ্তাহ পর দৈনিক শনাক্ত কভিড রোগীর সংখ্যা গত ১২ জুন আবার ১০০ ছাড়িয়ে যায়। ১২ দিনের মাথায় শুক্রবার তা দেড় হাজারের ঘরও ছাড়ায়।