প্রথম পাতা

কভিডে মারা গেলেন দুই কর পরিদর্শক

নিজস্ব প্রতিবেদক: কভিড-১৯ আক্রান্ত হয়ে দুজন কর পরিদর্শক মারা গেছেন (ইন্নালিল্লাহি… রাজিউন)। মৃত ব্যক্তিরা হলেনÑকর আপিল অঞ্চল-৪, ঢাকার কর পরিদর্শক খন্দকার জামাল হাসান ও কর অঞ্চল-১৫, ঢাকার কর পরিদর্শক মো. রমজান আলী।

রাষ্ট্রীয় দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে করোনা-আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসাধীন অবস্থায় দুজন মারা গেলেন। এ নিয়ে আয়কর বিভাগে করোনা আক্রান্ত হয়ে ৯ জন মারা গেছেন।

কর পরিদর্শক মো. রমজান আলীর সহকর্মী ও কর পরিদর্শক হুমায়ুন শেয়ার বিজকে বলেন, এক সপ্তাহ ধরে বাসায় অসুস্থ ছিল। করোনার উপসর্গ ছিল। শ্বাসকষ্ট বেড়ে যাওয়ায় বৃহস্পতিবার (১ এপ্রিল) ডা. সিরাজুল ইসলাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তার পেশার ওঠানামা করত। ল্যান্স আক্রান্ত হয়েছিল। শুক্রবার (৯ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে মারা গেছেন। তার বাড়ি টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে। তার স্ত্রী ও দুই মেয়ে রয়েছে। তিনি কর অঞ্চল-১৫, ঢাকায় কর্মরত ছিলেন।

কর আপিল অঞ্চল-৪, ঢাকার নাজির মেহেদী শেয়ার বিজকে বলেন, কর পরিদর্শক খন্দকার জামাল হাসানের প্রায় সময় সর্দি, কাশি লেগে থাকত। সর্বশেষ রোববার (৪ এপ্রিল) তিনি অফিস করেছেন। ওইদিন তার সর্দি, কাশি, হালকা জ্বর ছিল। কাশি বেশি ছিল। কাজ শেষে বাসায় চলে গেছেন।

তিনি বলেন, বুধবার (৬ এপ্রিল) তার স্ত্রী ফোন দিয়ে জানিয়েছেন, তিনি করোনা পজিটিভ। তার অবস্থা ভালো নয়, আইসিইউ বেড লাগবে। পরে আনোয়ার খান মর্ডান হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। তবে আইসিইউ বেড খালি ছিল না। রাত ৮টার দিকে তিনি মারা গেছেন। পরদিন কুষ্টিয়ায় তাকে দাফন করা হয়েছে। পরিবারে স্ত্রী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রয়েছে। দক্ষ এ কর্মকর্তা গত বছর কর পরিদর্শক হিসেবে পদোন্নতি পেয়েছেন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন
ট্যাগ ➧

সর্বশেষ..