ব্যাংক-বিমা শিল্প-বাণিজ্য

কভিড মোকাবিলায় নারী উদ্যোক্তাদের সহায়তা দেয়া প্রয়োজন

সিপিডির ওয়েবিনারে বক্তারা

নিজস্ব প্রতিবেদক: কভিড-১৯ অতিমারির সময়কালে সরকার ঘোষিত প্রণোদনা প্যাকেজগুলো নারীদের জন্য তেমনভাবে কার্যকর হয়নি। বেশিরভাগ নারী এসব প্যাকেজ সম্পর্কে অবগত নন। যারা অবগত ছিলেন, তাদের মধ্যে ঋণের জন্য আবেদনের অনিচ্ছা লক্ষ করা গেছে। অর্থনৈতিক মন্দা এবং ভবিষ্যতের অনিশ্চয়তার কারণে নারীরা এ ঋণের ব্যাপারে আগ্রহী ছিলেন না। বরং নগদ সহায়তাই বেশি প্রয়োজন বলে মনে করেন অনেক নারী উদ্যোক্তা।

এ পরিস্থিতি কাটিয়ে ওঠার জন্য নারীবান্ধব নতুন প্রণোদনা প্যাকেজ এবং বর্তমান প্যাকেজগুলোতে নারীদের জন্য বিশেষ ব্যবস্থা রাখার সুপারিশ উঠে আসে সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি) আয়োজিত ‘সরকারের আর্থ-সামাজিক পুনরুদ্ধার ব্যবস্থা: নারীরা কতটা উপকৃত হয়েছে’ শীর্ষক ভার্চুয়াল সংলাপে। সিপিডির আয়োজনে ও ইউএন ওমেনের সহযোগিতায় সংলাপটি আয়োজিত হয়।

সংলাপে মূল প্রতিবেদন উপাস্থাপন করে সিপিডির নির্বাহী পরিচালক ড ফাহমিদা খাতুন বলেন, নারী উদ্যোক্তাদের প্রশিক্ষণ দিতে হবে; যেন তারা চতুর্থ শিল্পবিপ্লব থেকে উপকৃত হতে পারে। কভিড-১৯-এর কারণে বাল্যবিয়ে এবং নারীর প্রতি সহিংসতা বেড়েছে বলে তুলে ধরেন ড. ফাহমিদা খাতুন। তিনি আরও বলেন যে, ব্যবসায়িক জোটগুলোর সহযোগিতায় নারীদের ব্যাংকিংয়ের মূল ধারায় প্রবেশ বাড়াতে হবে।

এ বিষয়ে সংলাপ প্রক্রিয়া চলমান রাখার আহ্বান জানান সংলাপের প্রধান অতিথি পরিকল্পনামন্ত্রী এমএ মান্নান। প্রণোদনা প্যাকেজের প্রচার সম্পর্কে তিনি মন্তব্য করে বলেন, সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় এ তথ্যগুলো সঠিক মানুষের কাছে পৌঁছে দিতে হবে।

অতিমারিতে নারীদের বৈশ্বিক চিত্র তুলে ধরেন ইউএন উইমেনের বাংলাদেশ প্রতিনিধি শোকো ইশিকাওয়া। সংলাপে সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে  তিনি বলেন, এসব প্যাকেজ নারীদের জন্য পর্যাপ্ত পরিমাণে ও স্বচ্ছভাবে বিতরণ নিশ্চিত করতে হবে।

সিপিডির সম্মাননীয় ফেলো অধ্যাপক রওনক জাহান সংলাপে সভাপতিত্ব করেন। সমাপনী বক্তব্যে তিনি বলেন, এ ধরনের সংলাপ থেকে উঠে আসা সুপারিশগুলো কার্যকর করতে একটা টাস্ক-ফোর্স গঠন করা যেতে পারে, যারা এ কাজের অগ্রগতি পর্যবেক্ষণ করবে।

সংলাপে আরও বক্তব্য রাখেন মানুষের জন্য ফাউন্ডেশনের নির্বাহী পরিচালক শাহীন আনাম, বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক নির্বাহী পরিচালক ড. লীলা রশিদ, পারসোনার ব্যবস্থাপনা পরিচালক কানিজ আলমাস, ব্র্যাক ব্যাংকের নতুন ব্যবস্থাপনা পরিচালক সেলিম আর এফ হোসেন, বাংলাদেশ মহিলা পরিষদের সহসভাপতি ড. ফৌজিয়া মোসলেম এবং দেশ গ্রুপ অব কোম্পানিজের পরিচালক বিদ্যা অমৃত খান।

সরকারি কর্মকর্তা, সাংবাদিক, গবেষক, শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন পেশাজীবীসহ অনেকে সংলাপে অংশগ্রহণ করেন এবং তাদের মতামত তুলে ধরেন।

সাংবাদিক, গবেষক, শিক্ষার্থী ও বিভিন্ন পেশাজীবীসহ অনেকে সংলাপে অংশগ্রহণ করেন এবং তাদের মতামত তুলে ধরেন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..