দিনের খবর পত্রিকা প্রথম পাতা

কভিড-১৯: সাতজনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ৩৬৬

নিজস্ব প্রতিবেদক: মহামারি কভিডে আক্রান্ত হয়ে দেশে গত এক দিনে আরও সাতজনের মৃত্যু হয়েছে, নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন আরও ৩৬৬ জন। গতকাল বিকালে সংবাদমাধ্যমে বিজ্ঞপ্তি পাঠিয়ে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পক্ষ থেকে দেশে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির এ সবশেষ তথ্য জানানো হয়।
সেখানে বলা হয়, সকাল ৮টা পর্যন্ত শনাক্ত ৩৬৬ জনকে নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে পাঁচ লাখ ৪৩ হাজার ৭১৭ জন হয়েছে। আর গত এক দিনে মারা যাওয়া সাতজনকে নিয়ে দেশে করোনাভাইরাসে মোট মৃতের সংখ্যা আট হাজার ৩৫৬ জনে দাঁড়িয়েছে।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হিসাবে বাসা ও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আরও ৬৯২ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন গত এক দিনে। তাতে এ পর্যন্ত সুস্থ রোগীর মোট সংখ্যা বেড়ে চার লাখ ৯২ হাজার ৫৯ জন হয়েছে।
বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল গতবছর ৮ মার্চ। আর গত বছরের ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর।
স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সারা দেশে ১১৭টি আরটি-পিসিআর ল্যাব, ২৯টি জিন-এক্সপার্ট ল্যাব ও ৬৮টি র‌্যাপিড অ্যান্টিজেন ল্যাবে অর্থাৎ সর্বমোট ২১৪টি ল্যাবে ১১ হাজার ১০৩টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এ পর্যন্ত পরীক্ষা হয়েছে ৩৯ লাখ ৫৮ হাজার ৭৭৬টি নমুনা। সরকারি ব্যবস্থাপনায় এ পর্যন্ত নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৩০ লাখ ৫৯ হাজার ৯৫৮টি। আর বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় হয়েছে আট লাখ ৯৮ হাজার ৮১৮টি।
২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষার বিবেচনায় শনাক্তের হার তিন দশমিক ৩০ শতাংশ, এ পর্যন্ত মোট শনাক্তের হার ১৩ দশমিক ৭৩ শতাংশ। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ৯০ দশমিক ৫০ শতাংশ এবং মৃত্যুর হার এক দশমিক ৫৪ শতাংশ।
গত এক দিনে যারা মারা গেছেন, তাদের মধ্যে চারজন পুরুষ আর নারী তিনজন। তাদের সবাই হাসপাতালে মারা গেছেন। তাদের মধ্যে চারজনের বয়স ছিল ৬০ বছরের বেশি, দুজনের বয়স ৫১ থেকে ৬০ বছরের মধ্যে এবং একজনের বয়স ৪১ থেকে ৫০ মধ্যে ছিল। মৃতদের মধ্যে পাঁচজন ঢাকা বিভাগের, একজন করে রাজশাহী ও বরিশাল বিভাগের বাসিন্দা ছিলেন।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..