প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

কমেছে সবজি ও মুরগির দাম অপরিবর্তিত গরুর মাংসের দাম

নিজস্ব প্রতিবেদক: সপ্তাহ শেষে বাজারে কমেছে মুরগি ও সবজির দাম। প্রকারভেদে ২০-৩০ টাকা পর্যন্ত দাম কমেছে মুরগির। অন্যদিকে অপরিবর্তিত রয়েছে গরু ও খাসির মাংসের দাম। মাছের বাজারও আছে আগের দামেই। গতকাল শুক্রবার রাজধানীর রায়েরবাজার ঘুরে এসব তথ্য জানা গেছে।

গত সপ্তাহের তুলনায় এ সপ্তাহে কমেছে ব্রয়লার মুরগি ও ডিমের দাম। কিছুটা কমতি সবজির দামও। সবজি ব্যবসায়ীরা বলছেন, বাজারে শীতের সবজির সরবরাহ বাড়ায় কমেছে এর দাম। তাতে কিছুটা স্বস্তি পাচ্ছেন ক্রেতারা। কয়েকটি ছাড়া বাকি সব সবজির দাম মোটামুটি ক্রেতাদের নাগালে রয়েছে। সামনের দিনগুলোতে সবজির সরবরাহ আরও বাড়বে এবং দাম আরও কমবে বলে বিক্রেতারা জানান।

খুচরা বাজারে পেঁপে ও মুলা ৩০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে। শীতকালীন অন্যান্য সবজির কেজি ৪০ থেকে ৬০ টাকা। কিছু সবজি ৭০ থেকে ৮০ টাকা কেজি দরেও বিক্রি হচ্ছে, যেগুলো গ্রীষ্মের। এর মধ্যে শিম, পটলের তুলনায় অন্য সবজির দাম বেশি।

বাজার ঘুরে দেখা যায়, প্রতি কেজি পুরোনো আলু ২৫ টাকা, বেগুন ৪০ টাকা, পটোল ৪০, শসা ৫০-৬০ টাকা, শিম ৫০ টাকা, বরবটি ৬০ টাকা, কাঁচামরিচ ৩০ টাকা, ধনিয়াপাতা ৬০ টাকা, ঢ্যাঁড়স ৬০ টাকা, পেঁপে ৩০ টাকা, করলা ৫০-৬০ টাকা, গাজর ৬০ টাকা, ব্রকলি ৮০-১০০ টাকা ও পেঁয়াজ পাতা ৪০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। প্রতি পিস লাউ ৫০ টাকা, ফুলকপি ৩০ টাকা, বাঁধাকপি ৪০ টাকা করে এবং লালশাক প্রতি আঁটি দাম ১০ টাকা।

মানিক নগর এলাকার খুচরা বিক্রেতা মো. রফিকুল ইসলাম বলেন, গত সপ্তাহে তিনি ৫০-৬০ টাকায় যেই ফুলকপি বিক্রি করেছেন, এখন সেটির দাম ৩০ টাকা। তিনি উল্লেখ করেন, দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রচুর সবজি ঢাকায় আসছে। আগামী দুই-তিন মাস সবজির বাজার স্বাভাবিক থাকবে বলেও মনে করেন তিনি।

বাজারে গরুর মাংস ৬৮০-৭০০ টাকা এবং খাসির মাংস ৯০০-৯৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। গত সপ্তাহেও একই দামে বিক্রি হয়েছে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা।

অন্যদিকে ব্রয়লার মুরগি ১৪০ টাকা, পাকিস্তানি মুরগি ২৫০ টাকা, লেয়ার মুরগি ২৩০ টাকা, কক মুরগি ১৯০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। গত সপ্তাহে এসব মুরগির দাম ২০-৩০ টাকা কেজি প্রতি বেশি ছিল বলে জানান ব্যবসায়ী মোহাম্মদ আইয়ূব আলী। তিনি বলেন, ঠাণ্ডার জন্য এ সপ্তাহে দাম কমেছে। সামনে বাড়তে বা কমতেও পারে। সেটা এখন বলা যাচ্ছে না।

এদিকে, মাছের বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বাজারে পুঁটি মাছ ২৫০ টাকা, বড় রুই মাছ ৪৫০ টাকা, কাতল মাছ ৪০০ টাকা, শিং মাছ ৫০০ টাকা, টাকি মাছ ৬০০ টাকা, চিংড়ি ৬০০ টাকা, রূপচাঁদা ৭০০-৮০০ টাকা, বোয়াল ৬৫০ থেকে ৭০০ টাকা, এক কেজির বেশি ওজনের ইলিশ ১১০০ টাকা এবং এক কেজির কম ওজনের ইলিশ ৮৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

বাজারের মাছ ব্যবসায়ী কালাম বলেন, মাছের বাজার নিয়মিতই আপ-ডাউন করে। গত সপ্তাহে বাজারে এমনই দাম ছিল।