প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

কয়রায় বাঁধ ভেঙে চার গ্রাম প্লাবিত

প্রতিনিধি, খুলনা: মাত্র ২৩ দিনের ব্যবধানে খুলনার কয়রা উপজেলায় কপোতাক্ষ নদের জোয়ারের চাপে অস্থায়ী রিং বাঁধ ভেঙে চার গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। এলাকাবাসী জানান, দক্ষিণ বেদকাশী ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ডের চরামুখা গ্রামে গতকাল শনিবার দুপুরের জোয়ারের পানি বৃদ্ধি পাওয়ায় অস্থায়ী রিং বাঁধ ভেঙে যায়। এতে ওই ইউনিয়নের তিন থেকে চারটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। আতঙ্কে রয়েছেন উপকূলবাসী।

স্থানীয় বাসিন্দা শোয়েব আক্তার বলেন, শনিবার দুপুরে জোয়ারে কপোতাক্ষ নদের পানি স্বাভাবিক অবস্থার চেয়ে বৃদ্ধি পেয়ে বাঁধ ভেঙে লোকালয়ে প্রবেশ করছে।

এদিকে দুপুরের আগে ভেঙে যাওয়া বাঁধ এলাকাবাসী মেরামত করতে সক্ষম হয়েছেন বলে জানিয়েছেন স্থানীয় ইউপি সদস্য ওসমান গনি খোকন। তিনি বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান আছের আলীর নেতৃত্বে বাঁধ মেরামতে অংশ নেন গ্রামবাসী। তবে প্রবল জোয়ারের চাপে এই বাঁধ কতটুকু টিকে থাকবে, তা নিয়ে তিনি সংশয় প্রকাশ করেছেন।

দক্ষিণ বেদকাশি ইউনিয়নের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো. আব্দুর ছালাম খান বলেন, দুপুরে জোয়ারের পানি বেড়ে অস্থায়ী রিং বাঁধ ভেঙে যায়। সেইসঙ্গে তিন থেকে চারটি গ্রাম প্লাবিত হয়েছে। তবে ভাটায় বাঁধ মেরামত করা হয়েছে।

এর আগে গত ১৭ জুলাই ভাটির টানে একই এলাকার ২০০ মিটার জায়গা ভেঙে কপোতাক্ষ নদে চলে যায়। স্থানীয়রা স্বেচ্ছাশ্রমের মাধ্যমে ভেঙে যাওয়া স্থান মেরামত করেন। সেখানে স্থায়ী বাঁধ মেরামত না হওয়ায় আজ আবার ফের বাঁধ ভেঙে পানি প্রবেশ করেছে।