বিশ্ব সংবাদ

কয়লার ব্যবহার বন্ধ করছে জার্মানি

শেয়ার বিজ ডেস্ক : ২০৩৮ সালের মধ্যে কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎ উৎপাদন কেন্দ্র সম্পূর্ণ বন্ধ করতে যাচ্ছে জার্মানি। দেশটির সরকার ও কয়লা উৎপাদনকারী অঙ্গরাজ্যগুলো এ বিষয়ে একটি চুক্তি করেছে। কয়েকটি কেন্দ্র এ বছরই বন্ধ করে দেওয়া হবে। খবর: ডয়চে ভেলে।

গত বৃহস্পতিবার চ্যান্সেলর অ্যাঙ্গেলা মের্কেলের সরকার ও কয়লা উৎপাদনকারী চার অঙ্গরাজ্য তাদের পরিকল্পনার বিস্তারিত তুলে ধরে। অঙ্গরাজ্য চারটি হলো নর্থরাইন-ওয়েস্টফালিয়া, সাক্সনি, সাক্সনি-আনহল্ট ও ব্রান্ডেনবুর্গ।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, জার্মানির সরকার নির্দিষ্ট সময়ের আগেই লক্ষ্যে পৌঁছাতে চায়, যে কারণে তারা ২০৩৮ সালকে লক্ষ্যমাত্রা ধরলেও তিন বছর আগে অর্থাৎ ২০৩৫ সালের মধ্যে কয়লার ব্যবহার সম্পূর্ণ বন্ধের পরিকল্পনা করেছে। কয়লার ব্যবহার বন্ধ করার ক্ষতিপূরণ হিসেবে বিদ্যুৎ উৎপাদনকারী কোম্পানিগুলো ৪৩৫ কোটি ইউরো পাবে।

অন্তত আটটি কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র এ বছরই বন্ধ হচ্ছে। কয়লার ব্যবহার থেকে বেরিয়ে যাওয়ার এ প্রক্রিয়ায় সরকার ক্ষতিগ্রস্ত রাজ্যগুলোকে এক হাজার ৪০০ কোটি ইউরো দেবে। রাজ্যগুলোকে সহায়তার জন্য ভবিষ্যতে বাড়তি দুই হাজার ৬০০ কোটি ইউরো দেওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে। এ চুক্তিটি যখন পার্লামেন্টের অনুমোদন নিয়ে আইনে পরিণত হবে, কেবল তখনই আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়া শুরু হবে।

এ চুক্তির প্রশংসা করে জার্মানির পরিবেশমন্ত্রী স্ফেনিয়া শুলৎস বলেন, ‘আমরাই প্রথম দেশ যারা আইন করে শক্তির উৎস হিসেবে পরমাণু ও কয়লার ব্যবহার বন্ধ করছি। এর মাধ্যমে আমরা আন্তর্জাতিক বিশ্বকে গুরুত্বপূর্ণ বার্তা দিচ্ছি। অর্থমন্ত্রী ওলাফ শলৎস বলেন, ‘কয়লাভিত্তিক বিদ্যুৎকেন্দ্র বন্ধ করার জন্য আমাদের যে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দিতে হচ্ছে, তা বহনযোগ্য এবং আমার বিশ্বাস এর ফল ভালো হবে। জার্মানি জীবাশ্ম জ্বালানি ব্যবহার থেকে সরে আসতে বড় পদক্ষেপ নিয়েছে।’

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..