বিশ্ব সংবাদ

করপোরেট কর কমানোর ঘোষণা ভারতের

শেয়ার বিজ ডেস্ক: ভারতের স্থানীয় প্রতিষ্ঠানগুলোর জন্য করপোরেট করের হার কমানোর ঘোষণা দিয়েছেন দেশটির অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামন। গতকাল শুক্রবার গোয়ায় এক সংবাদ সম্মেলনে অর্থমন্ত্রী জানান, দেশীয় প্রতিষ্ঠানগুলো এবং নতুন উৎপাদনকারী প্রতিষ্ঠানগুলোর করপোরেট করের হার কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। নতুন কার্যকর করের হার ৩০ শতাংশ থেকে কমিয়ে ২৫ দশমিক দুই শতাংশে নামিয়ে আনা হবে। এতে সব সারচার্জ অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। তবে যেসব প্রতিষ্ঠান বর্তমানে ধুঁকছে, তাদের ক্ষেত্রেই এটি প্রযোজ্য হবে বলে জানান তিনি। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রীর এ ঘোষণার পরপরই দেশটির শেয়ারবাজার গতকাল ঊর্ধ্বমুখী হয়। সেনসেক্স ৯০০ পয়েন্ট বেড়ে যায় এবং নিফটির সূচকও ১০ হাজার ৯০০-এর ওপরে উঠে যায়। খবর: এনডিটিভি।
অর্থমন্ত্রী বলেন, ‘আয়কর আইন, ১৯৬১ সংশোধন করার জন্য অধ্যাদেশ আনা হচ্ছে, যার মাধ্যমে কর আইনে এ বিষয়গুলো সংশোধন করা হবে।’ কিন্তু প্রবৃদ্ধি ও বিনিয়োগের প্রচারের জন্য ২০১৯-২০ অর্থবছর থেকে আয়কর আইনে একটি নতুন বিধান অন্তর্ভুক্ত হয়েছে। কিন্তু চাহিদা বৃদ্ধি এবং বিনিয়োগ বাড়াতে কেন্দ্রীয় সরকার ঘোষিত একাধিক পদক্ষেপের পরই জুনের শেষ প্রান্তিকের মধ্যে দেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি পাঁচ শতাংশের নিচে চলে যায়। সবচেয়ে বড় প্রভাব পড়ে দেশের গাড়িশিল্পে। মোট দেশজ উৎপাদন বা জিডিপিতে সবচেয়ে বড় অবদানকারী গাড়িশিল্পে গ্রাহকদের চাহিদা ক্রমেই হ্রাস পাওয়ার কারণে বিরাট মন্দা দেখা যায়। অনেক গাড়িনির্মাতাই সাময়িকভাবে নতুন গাড়ি উৎপাদন বন্ধ করে দিয়েছে এবং কাজ হারিয়েছেন গাড়িশিল্পের সঙ্গে যুক্ত বহু মানুষ।
কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামনের করপোরেট কর কমানোর ঘোষণাকে ঐতিহাসিক বলছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এ পদক্ষেপ ১৩০ কোটি ভারতীয়ের হƒদয় জয় করবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি। এ ঘোষণা মেক ইন ইন্ডিয়া প্রকল্পকে দুর্দান্ত উদ্দীপনা দেবে বলেও মনে করেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী এক টুইট বার্তায় বলেন, এটি কোটি কোটি ভারতীয়র জন্য আরও বেশি কর্মসংস্থান সৃষ্টি করবে। করপোরেট ট্যাক্স কমানোর পদক্ষেপটি ঐতিহাসিক। এটি মেক ইন ইন্ডিয়ার পক্ষে দুর্দান্ত উদ্দীপনা, বিশ্বের বেসরকারি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করা, আমাদের বেসরকারি খাতের প্রতিযোগিতামূলক দক্ষতা বাড়ানো, আরও বেশি কর্মসংস্থান সৃষ্টি করা এবং ফলে ১৩০ কোটি ভারতীয়র জয়।
প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, গত কয়েক সপ্তাহের ঘোষণাগুলো স্পষ্টভাবে প্রমাণ করে যে, আমাদের সরকার ভারতকে ব্যবসায়িকভাবে আরও উন্নত করার কোনো সম্ভাবনা ছাড়ছে না।

সর্বশেষ..