কোম্পানি সংবাদ পুঁজিবাজার

করহার পাঁচ শতাংশ করার প্রস্তাব বিএমবিএ’র

পুঁজিবাজারে কালোটাকা বিনিয়োগ

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশের অর্থনৈতিক উন্নয়নে পুঁজিবাজারে অপ্রদর্শিত আয় বা কালোটাকা বিনিয়োগের ক্ষেত্রে করহার ১০ শতাংশ থেকে কমিয়ে পাঁচ শতাংশ করতে চায় বাংলাদেশ মার্চেন্ট ব্যাংকার্স অ্যাসোসিয়েশন (বিএমবিএ)।

গেল বৃহস্পতিবার জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সম্মেলন কক্ষে প্রাক-বাজেট আলোচনায় সংগঠনটির পক্ষে সভাপতি ছায়েদুর রহমান এ অনুরোধ জানান। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন এনবিআর চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম।

কালোটাকা বিনিয়োগের বিষয়ে ছায়েদুর রহমান বলেন, বর্তমানে কালো টাকা বিনিয়োগে ১০ শতাংশ হারে কর দিতে হচ্ছে। রাজস্ব বোর্ডের এ সিদ্ধান্তে পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ কিছুটা হলেও বেড়েছে। নির্ধারিত এই করহার ১০ শতাংশ থেকে কমিয়ে পাঁচ শতাংশ করার প্রস্তাব করছি এবং এর পাশাপাশি মেয়াদ আরও এক বছর (২০২১-২২ অর্থবছর) বাড়ানোর জন্য অনুরোধ করছি।

এনবিআরের সঙ্গে আলোচনায় আর্থিক প্রতিষ্ঠান, ব্যাংক, বিমা ও মার্চেন্ট ব্যাংক, ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের (সিএসই) প্রতিনিধিরা নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানের ও সংগঠনের পক্ষে বাজেট প্রস্তাব উপস্থাপন করেন।

এছাড়া মার্চেন্ট ব্যাংকের করপোরেট করহার ২৫ শতাংশ করা; লেনদেনের ওপর করহার আগের অবস্থায় অর্থাৎ শূন্য দশমিক ১৫ শতাংশ হার নির্ধারণ করা; তালিকাভুক্ত কোম্পানির ক্ষেত্রে গেটহার ১০ শতাংশ করা এবং তালিকাভুক্ত কোম্পানির ক্ষেত্রে করহার কমিয়ে ২০ শতাংশ করার সুপারিশ করেছে সংগঠনটি।

এ বিষয়ে ছায়েদুর রহমান বলেন, বর্তমানে মার্চেন্ট ব্যাংকগুলোর বৃহৎ করহার ৩৭ দশমিক ৫০ শতাংশ, যা হতাশাজনক। বাংলাদেশে বর্তমানে ৬৩টি মার্চেন্ট ব্যাংক কর্মরত আছে। পুঁজিবাজারের ধীরগতি, কভিড-১৯ ব্যবসার সীমাবদ্ধতা থাকায় বেশিরভাগ মার্চেন্ট ব্যাংক অপারেটিং চালানোই সম্ভব হচ্ছে না। এ অবস্থায় করপোরেট করহার ২৫ শতাংশ করার প্রস্তাব করছি।

সভাপতির বক্তব্যে এনবিআর চেয়ারম্যান বলেন, বাজেটে আর্থিক প্রতিষ্ঠানের গুরুত্ব অনেক।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..