আজকের পত্রিকা দিনের খবর প্রথম পাতা সর্বশেষ সংবাদ

করোনাভাইরাসে দেশে আরও একজনের মৃত্যু: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে ছয়জনের মৃত্যু হলো। বুধবার (১ এপ্রিল) ভিডিও কনফারেন্সে এ কথা জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) নিয়মিত অনলাইন ব্রিফিংয়ে ভিডিও কনফারেন্সে যুক্ত হয়ে এই তথ্য দেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

জাহিদ মালেক জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১৫৭ জনকে পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে নতুন করে তিনজনের দেহে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্ত হলেন ৫৪ জন। স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, বিভিন্ন স্থানে সরকারি নির্দেশনা কিছুটা অমান্য হচ্ছে। অনেক জায়গায় লোকজন ঘোরাফেরা করছে। গ্রামের বাড়িতে যাঁরা গেছেন, তাঁরা বেশি ঘোরাফেরা করছেন।

জনগণের উদ্দেশে জাহিদ মালেক বলেন, ‘আমরা দেশকে ঝুঁকির মধ্যে নিতে পারি না। আপনারা এই ধরনের কাজ (বাইরে ঘোরাফেরা) থেকে বিরত থাকুন। যারা সন্দেহজনক মনে করছেন, তারা টেন্ট করুন। বেশি বেশি করে টেস্ট করুন। নিজেরা সুস্থ থাকুন।’ করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের নেওয়া বিভিন্ন পদক্ষেপ তুলে ধরে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা প্রতিনিয়ত স্বাস্থ্যসেবার মান উন্নয়ন করছি। হাসপাতালগুলোকে আরও প্রস্তুত করছি। কুর্মিটোলাকে প্রস্তুত করেছি। ঢাকা ও ঢাকার বাইরের হাসপাতালগুলো প্রস্তুত করা হচ্ছে। ঢাকার বাইরে ময়মনসিংহ, রাজশাহী ও রংপুর মেডিকেলকে প্রস্তুত করা হচ্ছে। আমরা ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই) ও মাস্কের সংখ্যা বাড়িয়েছি।’

অন্যদিকে, প্রেস ব্রিফিংয়ে জাতীয় রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর) এর পরিচালক ড. হাবিবুর রহমান বলেন, গত ২৪ ঘণ্টায় আরও একজনসহ করোনায় আক্রান্ত হয়ে মোট ছয় জন প্রাণ হারিয়েছেন। এছাড়া আক্রান্তের সংখ্যাও ৫১ থেকে তিন জন বৃদ্ধি পেয়ে হয়েছে ৫৪ জন। সাধারণ রোগীদের চিকিৎসার স্বার্থে প্রাইভেট চেম্বার বন্ধ না করতে ডাক্তারদের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় ১৫৭জনকে পরীক্ষা করা হয়েছে। তাদের মধ্যে তিন জনকে করোনা পজিটিভি শনাক্ত করা হয়। এনিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫৪ জন। ড. হাবিবুর রহমান আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় ৯ জনকে আইসোলেশনে নেওয়া হয়েছে। এনিয়ে আইসোলেশনে এখন আছেন মোট ৭৩ জনকে এবং শুরু থেকে এখন পর্যন্ত মোট আইসোলেশনে নেওয়া হয়েছে ২৯৫কে। এদিকে কোভিড-১৭ আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত ২৬ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি গেছেন বলেও জানানো হয়। এছাড়াও হোম কোয়ারেন্টিনে আছেন ৬০ হাজার ৪৭৬ জন এবং প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে আছেন ২৩৪ জন।

গত ৮ মার্চ প্রথম ঘোষণা দেওয়া হয়, দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয়েছে। তখন বলা হয়, আক্রান্ত তিনজনের মধ্যে দুজন ইতালি থেকে সম্প্রতি দেশে ফিরেছেন। তাঁদের কাছ থেকে একজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এ পর্যন্ত দেশে পাঁচজন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। গত ১৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাসে মৃত্যুর ঘটনা ঘটে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..