বিশ্ব সংবাদ

করোনায় কান্তাসের ১০ কোটি ডলার ক্ষতির আশঙ্কা

এশিয়ামুখী ফ্লাইট হ্রাস

শেয়ার বিজ ডেস্ক: প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে যাত্রী কমে যাওয়ায় এশিয়ামুখী ফ্লাইট কমিয়েছে অস্ট্রেলিয়ার রাষ্ট্রীয় উড়োজাহাজ পরিবহন সংস্থা কান্তাস ও এর অঙ্গপ্রতিষ্ঠান জেটস্টার। গতকাল বৃহস্পতিবার হংকং, সিঙ্গাপুর, জাপানসহ এশিয়ার দেশগুলোতে অন্তত তিন মাসের জন্য কম ফ্লাইট পরিচালনার কথা জানিয়েছে তারা। কান্তাস পূর্বাভাস দিয়েছে করোনার প্রভাবে তাদের ৯ কোটি ৯০ লাখ ডলার ক্ষতি হবে। খবর: রয়টার্স।

কান্তাস জানিয়েছে, ‘আগামী তিন মাস তারা এশিয়ায় ১৬ শতাংশ কম ফ্লাইট পরিচালনা করবে। তাদের সাংহাইমুখী সব ফ্লাইট বাতিল এবং হংকং-সিঙ্গাপুরমুখী ফ্লাইট কমানো হয়েছে।’ সাশ্রয়ী পরিবহন প্রতিষ্ঠান জেটস্টার জানিয়েছে, অন্তত মে মাস শেষ হওয়ার আগ পর্যন্ত তারা এশিয়ায় ১৪ শতাংশ কম ফ্লাইট পরিচালনা করবে। এসব ফ্লাইটের রুট মূলত জাপান, থাইল্যান্ড ও চীনের মূল ভূখণ্ডমুখী।

কান্তাসের প্রধান নির্বাহী অ্যালান জয়েস জানান, করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের কারণে এশিয়ায় যাত্রীচাহিদা ব্যাপকহারে কমে গেছে। এর প্রভাবে ২০২০ আর্থিক বছরে প্রতিষ্ঠানটির প্রায় ১০০ মিলিয়ন ডলার ক্ষতি হতে পারে।

তিনি জানান, করোনা সংকটের কারণে কান্তাস এয়ারলাইন অন্তত ১৮টি উড়োজাহাজ বসিয়ে রেখেছে। এ সময়ের মধ্যেই কর্মীদের বার্ষিক ছুটি কাটাতে উৎসাহিত করা হচ্ছে। এশিয়ার বাইরে নিউজিল্যান্ড রুটেও কিছু ফ্লাইট কমিয়ে দেওয়া পরিকল্পনা আছে প্রতিষ্ঠানটির।

অস্ট্রেলিয়ায় এখন পর্যন্ত ১৫ জনের শরীরে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। দেশটির কর্তৃপক্ষ বলেছে, তাদের সবাই কোনো না কোনোভাবে উহান থেকে এ ভাইরাসের প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ বহনকারী।

গত ১ ফেব্রুয়ারি থেকে চীনফেরত নাগরিকদের সরাসরি দেশে প্রবেশ বন্ধ রেখেছে সরকার। তবে যারা অন্তত ১৪ দিন চীনের বাইরে রয়েছেন এবং শরীরে সিওভিআইডি-১৯’র কোনো লক্ষণ নেই, তারা নির্বিঘেœ অস্ট্রেলিয়ায় ঢুকতে পারবেন। যারা ১ ফেব্রুয়ারির আগে চীন থেকে বেরিয়েছেন, তাদের জন্যও এ প্রবেশ নিষেধাজ্ঞা থাকবে না।

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। গত বুধবার ভাইরাসের কেন্দ্রস্থল হুবেই প্রদেশে আরও ১০৮ জন মারা গেছে। এ নিয়ে চীনে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল দুই হাজার ১১২ জনে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..