দিনের খবর সুশিক্ষা

করোনায় ঢাবির ভর্তি পরীক্ষা পেছাল

নিজস্ব প্রতিবেদক: দেশে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী হওয়ার প্রেক্ষাপটে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষার তারিখগুলো পেছানো হয়েছে। আগামী ২১ মে থেকে ৫ জুন পর্যন্ত পাঁচটি ইউনিটের অধীনে ভর্তি পরীক্ষা হওয়ার কথা থাকলেও পরিবর্তিত তারিখ অনুযায়ী পরীক্ষাগুলো হবে ৩১ জুলাই থেকে ১৪ আগস্ট পর্যন্ত।

আজ বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ ভর্তি কমিটির এক সভায় এ সিদ্ধান্ত হয়।

ভার্চ্যুয়াল প্ল্যাটফর্মে অনুষ্ঠিত সভায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য মো. আখতারুজ্জামান সভাপতিত্ব করেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের সহ-উপাচার্য (প্রশাসন) মুহাম্মদ সামাদ, সহ-উপাচার্য (শিক্ষা) এ এস এম মাকসুদ কামাল, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক মমতাজ উদ্দিন আহমেদ, প্রক্টর অধ্যাপক এ কে এম গোলাম রব্বানী, অনুষদগুলোর ডিন, হলগুলোর প্রাধ্যক্ষসহ বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের বিভিন্ন পর্যায়ের প্রতিনিধিরা সভায় যুক্ত ছিলেন।

সভা শেষে সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জনসংযোগ দপ্তর জানিয়েছে, নতুন তারিখ অনুযায়ী ৩১ জুলাই চারুকলা অনুষদভুক্ত ‘চ’ ইউনিটের তত্ত্বীয় পরীক্ষার মধ্য দিয়ে শুরু হবে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের এবারের ভর্তি পরীক্ষা। এরপর ৬ আগস্ট বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ক’ ইউনিট, ৭ আগস্ট কলা অনুষদভুক্ত ‘খ’ ইউনিট, ১৩ আগস্ট ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদভুক্ত ‘গ’ ইউনিট ও ১৪ আগস্ট অনুষ্ঠিত হবে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিটের পরীক্ষা। ‘চ’ ইউনিটের অঙ্কন পরীক্ষার তারিখ পরে জানানো হবে।

সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অধ্যাপক সাদেকা হালিম বলেন, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার পরিস্থিতি বিবেচনায় নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষার তারিখ পেছানো হয়েছে। তবে ভর্তি পরীক্ষাবিষয়ক অন্যান্য সিদ্ধান্তগুলোতে কোনো পরিবর্তন করা হয়নি। অর্থাৎ পরীক্ষার সময়সূচি, মান বণ্টন ইত্যাদি আগের সিদ্ধান্ত অনুযায়ীই হচ্ছে। এ ছাড়া আটটি বিভাগীয় শহরে এবারের ভর্তি পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্তটিও বহাল আছে।

বিজ্ঞাপন
আগের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, প্রতিটি ইউনিটের পরীক্ষা বেলা ১১টা থেকে দুপুর সাড়ে ১২টা পর্যন্ত অনুষ্ঠিত হবে। মোট ১২০ নম্বরের ভর্তি পরীক্ষা হবে। সেখানে মূল পরীক্ষায় (বহুনির্বাচনী ও লিখিত) ১০০ এবং এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার ফলাফলের ওপর ১০ করে মোট ২০ নম্বর থাকবে। ক, খ, গ ও ঘ ইউনিটের ভর্তি পরীক্ষায় ৬০ নম্বরের বহুনির্বাচনী ও ৪০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়েছে। বহুনির্বাচনী ও লিখিত উভয় অংশের জন্য ৪৫ মিনিট করে সময় থাকবে। তবে ‘চ’ ইউনিটের তত্ত্বীয় পরীক্ষার জন্য ৩০ মিনিট আর লিখিত পরীক্ষার জন্য ৪৫ মিনিট সময় বরাদ্দ থাকবে৷

এর আগে ৮ মার্চ থেকে শুরু হয় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির আবেদন, চলে ৩১ মার্চ রাত ১১টা ৫৯ মিনিট পর্যন্ত। পাঁচটি ইউনিটে এবার মোট আবেদন পড়েছে ৩ লাখ ২০ হাজারের বেশি। যেখানে ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষে পাঁচটি ইউনিটে মোট শিক্ষার্থী ভর্তির আবেদন করেছিলেন ২ লাখ ৭০ হাজারের বেশি।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..