দিনের খবর প্রচ্ছদ শেষ পাতা

করোনায় বড় প্রভাব বৈদেশিক কর্মসংস্থানে

নিজস্ব প্রতিবেদক: কভিড-১৯-এর কারণে চলতি বছর বৈদেশিক কর্মসংস্থানে বড় ধরনের নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। এ বছর আগস্ট পর্যন্ত এক লাখ ৮১ হাজার ২৭৩ জনের বৈদেশিক কর্মসংস্থান হয়েছে। অথচ গত বছর এ সময়ে বৈদেশিক কর্মসংস্থান হয়েছিল চার লাখ ছয় হাজার ৯৬২ জনের। আর এ বছর লক্ষ্যমাত্রা ছিল সাড়ে সাত লাখ জনের বৈদেশিক কর্মসংস্থান হবে। কিন্তু সেই লক্ষ্যমাত্রা এখনও অনেক দূরে।

গতকাল মন্ত্রিসভার বৈঠকে কভিড-১৯ মহামারিকালে প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের গৃহীত পদক্ষেপ ও ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা সম্পর্কে মন্ত্রিসভাকে জানানো হয়। সেখানেই বৈদেশিক কর্মসংস্থানের এ চিত্র তুলে ধরা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। প্রধানমন্ত্রী ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এ বৈঠকে যোগ দেন।

বৈঠক শেষে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে বৈঠকের সিদ্ধান্ত জানান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, গত ১৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত এক লাখ ৪১ হাজার ৩৬ জন দেশে ফিরেছেন। এর মধ্যে ২৮ হাজার ৫৮৬ জন ট্রাভেল পাস নিয়ে এসেছেন। তাদের আবার বিদেশে যাওয়ার ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, করোনার এই সংকটের মধ্যেও ২০১৯-২০ অর্থবছর রেকর্ড ১৮ দশমিক ২১ বিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রবাসী আয় এসেছে, যা আগের বছরের চেয়ে ৯ দশমিক ছয় শতাংশ বেশি। মন্ত্রিসভার বৈঠকে সৌদি প্রবাসীদের যাওয়া নিয়ে সৃষ্ট সমস্যার বিষয়ে ব্যাখ্যা দেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী। তিনি জানান, সৌদি আরবের সঙ্গে আলোচনা করে সময় বাড়ানোর চেষ্টা করছেন তিনি। অনির্ধারিত আলোচনায় বৈদেশিক কর্মসংস্থানে নতুন জায়গা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। এ বিষয়ে আগামী বৈঠকে বিস্তারিত প্রতিবেদন দিতে সংশ্লিষ্টদের বলা হয়েছে।

এদিকে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন থাকলেও গতকাল মন্ত্রিসভা বৈঠকে কোনো আনুষ্ঠানিকতা ছিল না। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। মন্ত্রিসভার বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীর জš§দিন উদ্যাপন নিয়ে সচিবালয়ে ব্রিফিংয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলামের কাছে জানতে চান সাংবাদিকেরা। তখন মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী স্পষ্ট বলে দিয়েছেন কোনো রকম আনুষ্ঠানিকতা না করতে। যারা মন্ত্রিপরিষদের সদস্য, তার জন্য দোয়া কামনা করেছেন, তার সফলতা কামনা করেছেন। তিনি পারসনালি এটা (জš§দিন উদ্যাপন) এন্টারটেইন করতে চাননি।’

গতকাল বৈঠকে বেসরকারি মেডিকেল ও ডেন্টাল কলেজ আইনের খসড়া নীতিগতভাবে অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। বৈঠকে ন্যাশনাল সার্ভিস কর্মসূচি অষ্টম পর্বে সম্প্রসারণের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। এ পর্বে আরও ২৭ জেলায় এ কর্মসূচি বাস্তবায়ন করা হবে।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..