Print Date & Time : 29 October 2020 Thursday 8:08 am

করোনায় যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্ত ৫০ লাখ, ব্রাজিলে মৃত্যু লাখ ছাড়াল

প্রকাশ: August 10, 2020 সময়- 01:11 am

শেয়ার বিজ ডেস্ক : বিশ্বজুড়ে মহামারি সৃষ্টি করা করোনাভাইরাসে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতি ৬৬ জন বাসিন্দার মধ্যে একজন আক্রান্ত হয়েছেন। শনিবার দেশটিতে শনাক্ত মোট রোগীর সংখ্যা ৫০ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। রেকর্ড সংখ্যক আক্রান্ত নিয়ে যুক্তরাষ্ট্র বিশ্বের শীর্ষে আছে। এদিকে অধিকাংশ শহরের দোকানপাট ও রেঁস্তোরা খোলার পর আক্রান্তের সংখ্যা ঊর্ধ্বগতিতে বাড়তে থাকা ব্রাজিলে করোনাভাইরাস মহামারিতে মৃত্যু লাখ ছাড়িয়ে গেছে। খবর: রয়টার্স।

জনস হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের কভিড-১৯ ড্যাশবোর্ডে দেওয়া হিসাব অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রের মৃত্যুর সংখ্যা এক লাখ ৬২ হাজার ৪২৫। মোট আক্রান্তের পাশাপাশি মৃত্যুর সংখ্যায়ও শীর্ষে আছে বিশ্বের সবচেয়ে সম্পদশালী দেশটি। বিশ্বজুড়ে কভিড-১৯ মহামারিতে মোট মৃত্যুর প্রায় এক-চতুর্থাংশই ‘সুপার পাওয়ার’ হিসেবে পরিচিত এ দেশটিতে হয়েছে।

গত শনিবার ব্রাজিলের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় পূর্ববর্তী ২৪ ঘণ্টায় ৪৯ হাজার ৯৭০ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে। ওই সময়ে মৃত্যু হয়েছে আরও ৯০৫ জনের। এতে দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ লাখ ১২ হাজার ৪১২ জনে এবং মৃত্যুর সংখ্যা এক লাখ ৪৭৭ জনে দাঁড়িয়েছে।

এক শতাব্দী আগের স্প্যানিশ ফ্লুর পর থেকে সবচেয়ে প্রাণঘাতী ভাইরাস প্রাদুর্ভাবের সঙ্গে লড়াই করা ব্রাজিল প্রথম নতুন করোনাভাইরাস আক্রান্তের কথা জানিয়েছিল ফেব্রুয়ারির শেষ দিকে। এরপর দেশটির ৫০ হাজার লোকের প্রাণনাশে ভাইরাসটি সময় নেয় তিন মাস, কিন্তু পরবর্তী ৫০ হাজারের মৃত্যু হয় মাত্র ৫০ দিনে।

শনাক্ত রোগী ও মৃত্যুতে দ্বিতীয় স্থানে থাকা ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো প্রাদুর্ভাবের

শুরু থেকেই ‘করোনাভাইরাসকে খুব একটা গুরুত্ব দেননি’ বলে তার সমালোচকরা অভিযোগ করে আসছেন। সংক্রমণ প্রতিরোধে লকডাউন ও বিধিনিষেধের বিরোধী এ ডানপন্থি প্রেসিডেন্ট

অর্থনীতি সচল রাখতে আঞ্চলিক গভর্নর এমনকি নিজ মন্ত্রিসভার অনেক সদস্যের বিরুদ্ধেও অবস্থান নিয়েছিলেন। ৬৫ বছর বয়সী এ প্রেসিডেন্ট নিজে ও তার মন্ত্রিসভার অনেক সদস্যও পরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন।

ব্রাজিলের সংক্রামক রোগ সমিতির জ্যেষ্ঠ সদস্য ডা. জোসে দাভি উরবায়েজ বলেছেন, ‘আমাদের হতাশার মধ্যে জীবনযাপন করা উচিত, কারণ এটি বিশ্বযুদ্ধের মতো শোচনীয় পরিস্থিতি; কিন্তু ব্রাজিল সমষ্টিগতভাবে অসাড়তার মধ্যে আছে।’ 

এখনও এই মহামারির সঙ্গে লড়াই করার মতো ব্রাজিলের কোনো সমন্বিত পরিকল্পনা না থাকা নিয়ে সতর্ক করেছেন উরবায়েজ ও অন্যান্য জনস্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। দেশটির অনেক কর্মকর্তা সবকিছু পুনরায় খুলে দেওয়ার ওপর জোর দেয়াতে রোগটি আরও ছড়িয়ে পড়ে প্রাদুর্ভাব মারাত্মক রূপ নেবে বলে মনে করছেন তারা।