বিশ্ব সংবাদ

কলকাতাকে ভারতের রাজধানী ঘোষণার দাবি মমতার

শেয়ার বিজ ডেস্ক: কলকাতাকে ভারতের অন্যতম রাজধানী হিসেবে ঘোষণা করার দাবি তুলেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর জš§দিনে গতকাল এ দাবি তোলেন তিনি। শুধু কলকাতাই নয়, দেশের চার প্রান্তে চারটি রাজধানী ঘোষণা করার দাবি জানিয়েছেন তিনি। দিল্লিতেই কেন রাজধানী সীমাবদ্ধ হয়ে থাকবে, সেই প্রশ্নও তুলেছেন মমতা। খবর : এনডিটিভি।

নেতাজির জš§দিন উপলক্ষে এ দিন কলকাতার শ্যামবাজার থেকে রেড রোড পর্যন্ত পদযাত্রার পর এক সভায় দেয়া বক্তব্য দেন মমতা। নেতাজিকে উপেক্ষা করা নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকারের তীব্র সমালোচনা করেন তিনি। একই সঙ্গে বাংলাকে বঞ্চনা ও অবহেলার অভিযোগও করেন। এ সময় তিনি কলকাতার পাশাপাশি দক্ষিণ ভারত, উত্তর ভারত এবং উত্তর পূর্ব ভারতেও একটি করে রাজধানী ঘোষণা করার প্রস্তাব দেন। দেশের চারটি রাজধানীতে পালাক্রমে পার্লামেন্টের অধিবেশন বসানোর প্রস্তাব দিয়েছেন মমতা।

উদাহরণ হিসেবে দক্ষিণের কেরালা, অন্ধ্র প্রদেশ, উত্তর এবং মধ্য ভারতের উত্তর প্রদেশ, পাঞ্জাব, মধ্যপ্রদেশ এবং উত্তর পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলোর কোনো একটিকে রাজধানী হিসেবে ঘোষণা করার কথা বলেন মমতা। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘স্বাধীনতা সংগ্রামের জš§ হয়েছিল বাংলা, বিহারে। গান্ধীজী বেলেঘাটায় এসে আন্দোলন করতেন। নবজাগরণ, বিধবা বিয়ে, বাল্যবিয়ের মতো সংস্কারের জš§ বাংলায় হয়েছিল। বাংলা কোনো অবহেলা সইবে না। নেতাজির নাম বললে আমার হƒদয়ে আবেগের সৃষ্টি হয়। নেতাজিকে দুই পাতার বই পড়ে জানা যাবে না।’

১৭৭২ থেকে ১৯১১ পর্যন্ত ভারতের রাজধানী ছিল কলকাতা। সে প্রসঙ্গ টেনে মমতা বলেন, ‘কলকাতা এক দিন ভারতের রাজধানী ছিল, তাহলে আজকে ভারতবর্ষের একটা রাজধানী হোক কলকাতা।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কলকাতা সফরের আগেই নেতাজি স্মরণের মঞ্চকে ব্যবহার করে কেন্দ্রীয় সরকারের ওপরে চাপ বাড়াতে চার রাজধানীর দাবিতে সরব হন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। বিধানসভা নির্বাচনের আগে হঠাৎ কলকাতাকে দেশে অন্যতম রাজধানী হিসেবে ঘোষণা করার মমতার এই দাবির পেছনে ভোট অঙ্কই দেখছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..