প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

কাফনের কাপড় পরে শিক্ষার্থীদের মৌন মিছিল

শেয়ার বিজ ডেস্ক: সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবিতে শিক্ষার্থীদের আমরণ অনশন গতকাল শনিবার বেলা ৩টায় ৭২ ঘণ্টা পার হয়েছে। অনশন কর্মসূচির চতুর্থ দিনে বেলা ৩টা ২০ মিনিটে এক দফা দাবি আদায় করতে কাফনের কাপড় পরে মৌন মিছিল করেছেন তারা।

এর আগে বেলা ৩টার দিকে শিক্ষার্থীরা গোলচত্বরে জড়ো হন। এরপর তারা কাফনের কাপড় পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের গোলচত্বর ঘুরে চেতনা ৭১ ভাস্কর্যের দিকে যান। সেখান থেকে ঘুরে আবার গোলচত্বরে যান। শিক্ষার্থীরা গোলচত্বর এলাকায় অবস্থান করেন। কাফনের কাপড় পরে মৌন মিছিলে অংশ নেয়া শিক্ষার্থীদের সামনে স্ট্রেচারে করে প্রতীকী লাশ বহন করা হয়।

মৌন মিছিলে অংশ নেন তিন শতাধিক শিক্ষার্থী। মৌন মিছিল শুরুর আগে আন্দোলনরত শিক্ষার্থীরা বলেন, আমরণ অনশনের ৭২ ঘণ্টা পার হয়েছে। তবে এখন পর্যন্ত দাবির ব্যাপারে কোনো আশার বাণী শোনা যাচ্ছে না।

এদিকে অনশনে থাকা সহপাঠীদের অনেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। এরপরও উপাচার্য পদত্যাগ করছেন না। অনশনকারীদের কেউ মারা গেলে হাজারো শিক্ষার্থী উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে করা এ অনশনে অংশ নেবেন। প্রয়োজন হলে বিশ্ববিদ্যালয়ের সব শিক্ষার্থী আমরণ অনশনে যোগ দেবেন।

গত বুধবার ২টা ৫০ মিনিট থেকে উপাচার্যের পদত্যাগ দাবিতে অনশন শুরু হয়। এদিকে গতকাল শনিবার বেলা সোয়া ৩টা পর্যন্ত অনশনরত ২৩ শিক্ষার্থীর মধ্যে ১৭ জনকে হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অনশন কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছেন ছয় শিক্ষার্থী।

এ আন্দোলনের সূত্রপাত ১৩ জানুয়ারি। ওই দিন রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের বেগম সিরাজুন্নেসা চৌধুরী হলের প্রাধ্যক্ষ জাফরিন আহমেদের বিরুদ্ধে অসদাচরণের অভিযোগ তুলে তার পদত্যাগসহ তিন দফা দাবিতে আন্দোলন শুরু করেন হলের কয়েকশ’ ছাত্রী। গত শনিবার সন্ধ্যায় ছাত্রলীগ হলের ছাত্রীদের ওপর হামলা চালায়।

পরের দিন বিকেলে শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইসিটি ভবনে উপাচার্যকে অবরুদ্ধ করেন। তখন পুলিশ শিক্ষার্থীদের লাঠিপেটা ও তাদের লক্ষ্য করে শটগানের গুলি ও সাউন্ড গ্রেনেড ছোড়ে। ওই দিন রাত সাড়ে ৮টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ও শিক্ষার্থীদের হল ছাড়ার ঘোষণা দিলেও শিক্ষার্থীরা তা উপেক্ষা করে উপাচার্যের পদত্যাগ চেয়ে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছেন।

শিক্ষকদের সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রীর বৈঠক: এদিকে উদ্ভূত পরিস্থিতিতে বিশ্ববিদ্যালয়টির শিক্ষকদের একটি প্রতিনিধিদলের সঙ্গে বৈঠকে বসছেন শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনি। শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জ্যেষ্ঠ তথ্য কর্মকর্তা আবুল বলেন, সন্ধ্যা সাড়ে ৬টায় রাজধানীর হেয়ার রোডে শিক্ষামন্ত্রীর বাসায় এ বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

গত শুক্রবার রাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের পাঁচ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনির সঙ্গে দেখা করতে ঢাকায় আসেন। প্রতিনিধিদলের মধ্যে রয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক সমিতির সভাপতি তুলসী কুমার দাস, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ মুহিবুল আলম, ফিজিক্যাল সায়েন্সেস অনুষদের ডিন রাশেদ তালুকদার, অ্যাপ্লায়েড সায়েন্সেস অনুষদের ডিন আরিফুল ইসলাম ও ব্যবসায় প্রশাসন অনুষদের ডিন খায়রুল ইসলাম।