প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

কারণ ছাড়াই অস্বাভাবিকভাবে শেয়ারদর বাড়ছে ইমাম বাটনের

নিজস্ব প্রতিবেদক: শেয়ারদর বাড়ার পেছনে কোনো মূল্য সংবেদনশীল তথ্য নেই পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত ইমাম বাটন ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের। সম্প্রতি অস্বাভাবিকভাবে দর বাড়ার কারণ জানতে চাইলে কোম্পানিটি এমন তথ্য জানায়। ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

জানা গেছে, গত ২৭ জুন ধারাবাহিকভাবে শেয়ারদর বাড়ছে। গত ২৭ জুন কোম্পানির শেয়ারদর ছিল ১১২ টাকা ৪০ পয়সা, যা গত ২৯ জুনে লেনদেন হয় ১৩২ টাকা ৬০ পয়সায়। আর এই দর বাড়াকে অস্বাভাবিক মনে করছে ডিএসই। সম্প্রতি কোম্পানিটির অস্বাভাবিক দর বাড়ার কারণ জানতে চেয়ে ডিএসই নোটিস পাঠায়। জবাবে কোনো অপ্রকাশিত মূল্য সংবেদনশীল তথ্য ছাড়াই শেয়ারদর বাড়ছে বলে জানায় কোম্পানি কর্তৃপক্ষ।

এদিকে গতকাল কোম্পানিটির শেয়ারদর শূন্য দশমিক ৬০ শতাংশ বা ৮০ পয়সা কমে প্রতিটি সর্বশেষ ১৩১ টাকা ৮০ পয়সায় হাতবদল হয়, যার সমাপনী দরও ছিল একই। ওইদিন ১ কোটি ৫০ লাখ ৩০ হাজার টাকার শেয়ার লেনদেন হয়। দিনজুড়ে ১ লাখ ১৪ হাজার ৯০৭টি শেয়ার মোট ৬৬৫ বার হাতবদল হয়। দিনভর শেয়ারদর সর্বনি¤œ ১৩০ টাকা থেকে সর্বোচ্চ ১৩৫ টাকায় হাতবদল হয়। গত এক বছরে কোম্পানির শেয়ারদর ২২ টাকা ৬০ পয়সা থেকে ১৩৫ টাকায় ওঠানামা করে।

কোম্পানিটি ১৯৯৬ সালে পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত হয়ে বর্তমানে জেড ক্যাটেগরিতে অবস্থান করছে। ১০ কোটি টাকা অনুমোদিত মূলধনের বিপরীতে পরিশোধিত মূলধন সাত কোটি ৭০ লাখ টাকা। রিজার্ভে ঘাটতির পরিমাণ তিন কোটি ২২ লাখ টাকা। কোম্পানিটির মোট ৭৭ লাখ শেয়ার রয়েছে। ডিএসইর সর্বশেষ তথ্যমতে, মোট শেয়ারের মধ্যে উদ্যোক্তা ও পরিচালকদের কাছে রয়েছে ৩০ দশমিক ০৮ শতাংশ শেয়ার, প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকরীর কাছে ৯ দশমিক শূন্য এক শতাংশ ও সাধারণ বিনিয়োগকারীর কাছে বাকি ৬০ দশমিক ৯১ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।