প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

কালীগঞ্জ কৃষি কর্মকর্তার টাকা আত্মসাৎ

প্রতিনিধি, ঝিনাইদহ: ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তার বিরুদ্ধে রাজস্ব বাজেটের আওতায় রবি, খরিপ-১ ও খরিপ-২ মৌসুমের প্রকল্পের আন্তঃপরিচর্যা বাবদ রাজস্ব খাতে কৃষকের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ বিভিন্ন গণমাধ্যমে ফলাও করে প্রকাশিত হয়। এরপর তিনি তড়িঘড়ি করে কৃষকদের কাছ থেকে কেটে রাখা জনপ্রতি ১০০ টাকা ফেরতও দেন। ঘটনাটি ঝিনাইদহ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক আজগর আলীর দৃষ্টিগোচর হলে তিনি গত রোববার তাৎক্ষণিকভাবে জেলা প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা বিজয় কৃষ্ণ হালদারকে তদন্তের দায়িত্ব দেন। সোমবার বিজয় কৃষ্ণ হালদার তদন্ত শেষ করে প্রতিবেদন জমা দেন।

এ ব্যাপারে ঝিনাইদহ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের প্রশিক্ষণ কর্মকর্তা বিজয় কৃষ্ণ হালদার জানান, বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদে উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষকের রাজস্ব খাতের একশ টাকা প্রথমে কেটে রাখেন এবং পরবর্তীতে সেই টাকা আবার কৃষকদের ফিরিয়ে দেন। তার এ ধরনের কাজেই তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। এরপরও অফিশিয়ালি তদন্ত করেছি। ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার কাছে তদন্ত শেষে  প্রতিবেদনও জমা দিয়েছি ।

ঝিনাইদহ কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক আজগর আলী জানান, কালীগঞ্জ উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা সিকদার মোহায়মেন আকতারের বিরুদ্ধে উত্থাপিত অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তপূর্বক একটি প্রতিবেদন আমি হাতে পেয়েছি। এ প্রতিবেদনটি আমি ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার কাছে পাঠিয়ে দেব।