প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

কুলাউড়ায় টিলা কাটার অভিযোগ

 

শেয়ার বিজ প্রতিনিধি, মৌলভীবাজার: মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার বরমচাল রেলস্টেশনের পাশের টিলাভূমি কাটার অভিযোগ করা হয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দা মো. হানিফ এ বিষয়ে গত ২ জুলাই কুলাউড়া রেলওয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন। কিন্তু আজ পর্যন্ত এ বিষয়ে কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। এদিকে টিলাধসে রেললাইন কিংবা চলমান ট্রেনে বড় ধরনের দুর্ঘটনার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

অভিযোগে উল্লেখ করা হয়, উপজেলার বরমচাল রেলস্টেশনের পার্শ^বর্তী স্থানে রেললাইনের পাশের টিলাভূমি কাটছে স্থানীয় কিছু দুষ্কৃতকারী। স্থানীয় কিছু প্রভাবশালী ব্যক্তির ইন্ধনে এই অবৈধ কাজ করছে তারা। গত ১ জুলাই টিলা কাটার সময় মো. হানিফ বাধা দিলেও তারা কর্ণপাত করেনেনি। বরং হানিফকে বিভিন্নভাবে হুমকি দেন। এ কারণে তিনি পরদিন কুলাউড়া রেলওয়ে থানায় স্থানীয় হারুন মিয়া, ফুল মিয়া, রফিক মিয়াসহ অজ্ঞাত আরও ৮-১০ জনের নামে লিখিত অভিযোগ দেন। কিন্তু প্রশাসন বিভিন্ন অজুহাতে বিষয়টি স্থানীয়ভাবে সমাধানের জন্য তাকে প্রস্তাব দেয়। কিন্তু স্থানীয় পর্যায়ে কোনো সমাধান হচ্ছে না। এমনকি প্রভাবশালী মহল থানা থেকে অভিযোগ প্রত্যাহারের হুমকি দিচ্ছে।

এ বিষয়ে মো. হানিফ জানান, অনেক বছর হলো রেল সম্পত্তির এক দশমিক ২৯ শতাংশ তিনি লিজ নিয়েছেন। তিনি প্রতি বছর লিজকৃত ভূমির খাজনা পরিশোধ করছেন। কিন্তু স্থানীয় কিছু দুষ্কৃতকারী সবসময় রাতের অন্ধকারে তার জমিতে চাষকৃত বাঁশ ও গাছ কেটে নিয়ে যায়। কিন্তু এবার দুষ্কৃতকারীরা দিনদুপুরে তার লিজ নেওয়া জমির একটি অংশের টিলাভূমি কেটে মাটি সরিয়ে নিচ্ছে। তিনি বাধা  দেওয়ায় হুমকি দিচ্ছে। রেলওয়ে থানায় লিখিত অভিযোগ দিয়েছেন, কিন্তু এখনও কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি। বরং এখন দুষ্কৃতকারীরা আরও বেপরোয়াভাবে মাটি কাটার প্রস্তুতি নিচ্ছে।

এ বিষয়ে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আবদুল আহবাব চৌধুরী শাজাহান জানান, রেলের টিলা কাটা হলে এটা অন্যায়। তিনি ঘটনাস্থলে গিয়ে দেখবেন। কুলাউড়া রেলওয়ে থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এসআই রাসেল জানান, তদন্ত চলছে। তদন্ত শেষে আইনানুগ ব্যবস্থা নেবেন।