বিশ্ব সংবাদ

ক্যাপিটল হিলে হামলায় ট্রাম্পের বিরুদ্ধে মামলা

(FILES) In this file photo taken on December 7, 2020 US President Donald Trump looks on during a ceremony presenting the Presidential Medal of Freedom to wrestler Dan Gable in the Oval Office of the White House in Washington, DC. - Here we go again. The defendant in the coming week's impeachment trial -- Donald Trump -- remains the same, but several leading figures in the Senate proceedings have changed from the previous effort to oust the now-former president. So, too, have the charges. Trump was impeached in December 2019 for abuse of power and obstruction of Congress, but he is being tried now for "incitement of insurrection" for his role in last month's deadly riot at the US Capitol. Here is a look at some of the people expected to play key roles in the must-see televised event. (Photo by SAUL LOEB / AFP)

শেয়ার বিজ ডেস্ক: যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেস ভবন ক্যাপিটল হিলে দাঙ্গায় উসকানির ষড়যন্ত্রের অভিযোগে যুক্তরাষ্ট্র্রের সাবেক প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিরুদ্ধে এবার মামলা হয়েছে। স্থানীয় সময় গত মঙ্গলবার ডেমোক্র্যাট আইনপ্রণেতা ব্যানি থমসন নাগরিক অধিকার আইনে এ মামলা করেন। খবর: রয়টার্স।

ডিস্ট্রিক্ট অব কলাম্বিয়া ফেডারেল কোর্টে দায়ের করা মামলার অভিযোগে বলা হয়েছে, ট্রাম্প ও জুলিয়ানি ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটল হিলে দাঙ্গায় উসকানির ষড়যন্ত্র করেছেন। তাদের এই কাজের সহযোগী ‘প্রাউড বয়েজ’ ও ‘ওথ কিপার্স’ নামের দুটি কট্টর ডানপন্থি সংগঠন। ক্যাপিটল হিলে কংগ্রেস যখন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফলাফল প্রত্যয়ন করছিল, তখন সহিংসতা ও ষড়যন্ত্র করে তা প্রতিহত করার চেষ্টা করেছেন বিবাদীরা।

মামলা দায়ের-পরবর্তী সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, যুক্তরাষ্ট্র্রের কংগ্রেসের নিন্মকক্ষ প্রতিনিধি পরিষদের আরও দুই সদস্য হ্যাঙ্ক জনসন ও বানি ওয়াটসন কোলম্যানও এ মামলায় বাদী হিসেবে শিগগির যোগ দেবেন। সিনেটের অভিশংসন আদালতে ট্রাম্পের বিরুদ্ধে উপস্থাপিত অভিযোগই এ মামলার বিবরণীতে উল্লেখ করা হয়েছে। মামলায় বলা হয়েছে, ট্রাম্প উসকানি দিয়ে ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটল হিলের ঘটনা ঘটিয়েছেন। ওই সহিংসতায় পাঁচজনের মৃত্যু হয়েছে। নির্বাচনের ফলাফল পাল্টে দেয়ার জন্য ক্যাপিটল হিলে হামলা করা হয়েছে। অভিশংসন আদালতে সংখ্যাগরিষ্ঠ সিনেট সদস্য ট্রাম্পের দণ্ডের পক্ষে ভোট দেন। কিন্তু তিন-চতুর্থাংশ ভোট না পড়ায় অভিশংসন দণ্ড থেকে অব্যাহতি পেয়েছেন ট্রাম্প। ১৩ ফেব্রুয়ারি দ্বিতীয় দফায় সিনেটের অভিশংসন আদালতে দণ্ড থেকে অব্যাহতি পান তিনি।

কংগ্রেসম্যান ব্যানি থমসন বলেন, ১৩ ফেব্রুয়ারির পর অন্য কোনো নাগরিক অধিকার সংগঠন মামলা দায়ের না করায় তিনিই এগিয়ে এসেছেন। তাকে এ কাজে সহযোগিতার জন্য প্রভাবশালী নাগরিক অধিকার সংগঠন এনএএসিপির এগিয়ে আসার কথা তিনি জানান।

এনএএসিপির প্রেসিডেন্ট ডেরিক জনসন বলেন, আমরা যদি অভ্যন্তরীণ সন্ত্রাসবাদকে বাধা দিতে না পারি, তাহলে যুক্তরাষ্ট্র্রের পরিস্থিতি সম্পূর্ণ অচেনা হয়ে উঠবে। রাষ্ট্রদ্রোহ ও রাষ্ট্রক্ষমতা জবরদখলের চেষ্টাকারীদের শক্তভাবে দমন করতে হবে।

ট্রাম্পের পক্ষ থেকে তার প্রচারণা উপদেষ্টা জেসন মিলার বলেন, ভূত খোঁজার মতো সাবেক প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে অভিশংসন আদালতে অপরাধ খোঁজার চেষ্টা আগে করা হয়েছে। সাবেক প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প ৬ জানুয়ারির হামলার কোনো পরিকল্পনা করেননি। হামলায় কোনো ইন্ধন দেননি।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..