সুশিক্ষা

ক্যাম্পাসে শরতের আমেজ

কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর বলেছেন, শরত তোমার শিশির-ধোওয়া কুন্তলে, বনের পথে লুটিয়ে-পড়া অঞ্চলে; আজ প্রভাতের হৃদয় ওঠে চঞ্চলি।
ছয় ঋতুর দেশ বাংলাদেশ। একেকটি ঋতুতে প্রকৃতি নতুন রূপে সাজে। ঋতুগুলো পর্যায়ক্রমে আবর্তন করে। শরৎ এদের মধ্যে অন্যতম। শরতকে ঋতুরানি বলা হয়। ভাদ্র ও আশ্বিনে চলে এর দৃপ্ত পদচারণ। বর্ষার শেষে নতুন আমেজের বুনিয়াদ রচনা করে এ ঋতু। কবিগুরু তাই এর বন্দনা করেছেন আনন্দে।
ঋতুরানির আপন ছন্দে সেজেছে সাভারের গণ বিশ্ববিদ্যালয় (গবি)। বর্ষা বিদায় নিতে না নিতেই শরতের পরিবেশ বিরাজ করছে ক্যাম্পাসের পরতে পরতে। এখানের কাশফুল যেন সেই জানান দিচ্ছে। কাশফুলের দোলনে মুগ্ধ সবাই। মনে হচ্ছে, বিধাতা যেন প্রকৃতির রাজা বসন্তের অহংকার কিছুটা দমনের জন্য শরতকে সাজিয়েছেন নিপুণভাবে।
গবি ক্যাম্পাসে বেড়াতে গেলে দেখতে পাবেন শরতের প্রকৃত মহিমা। বাদামতলা, খেলার মাঠ, ক্যান্টিন প্রভৃতি স্থানে জমে ওঠে শিক্ষার্থীদের গান আর আড্ডার আসর। বৃষ্টির বিড়ম্বনা না থাকায় তারা খোলা আকাশের নিচেই আনন্দ-আড্ডায় সময় পার করেন। কেউবা গল্প করে, আবার কেউ হয়তো গান গাইছেন। কারও আবৃত্তি যেন মাতিয়ে রাখে মন মাতানো শরতের পরিবেশটাকে। শরতের এমন স্নিগ্ধ পরিবেশে অনেকে কবিতা ও গান রচনা করেন।
শরতের পরিবেশ নিয়ে গণ বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়োকেমিস্ট্রি অ্যান্ড মলিউকুলার বায়োলজি বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী ফজলুল করিম বলেন, ক্যাম্পাস জীবনে আমার প্রিয় দিনগুলো কাটছে এ সময়ে। গুরু গুরু মেঘের ক্রন্দনকে মুক্তি দিয়ে কালো আকাশকে সাদা আভায় আলোকিত করে রাখে শরৎ। নীল আকাশে সাদা মেঘের ভেলা অন্য ঋতুতে পাওয়া যায় না এতটা সহজে।
কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের তৃতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী আশরাফ খান বলেন, কম্পিউটারের বাইরে আমরা মনের মতো একটি জগৎ শুধু শরতেই খুঁজে পাই, যা আমাদের প্রকৃতি নিয়ে জানার আগ্রহ আরও বাড়িয়ে দেয়।
ইংরেজি বিভাগের শিক্ষার্থী ফারজানা রহমান বলেন, শরতের আকাশটা আমার কাছে এতটাই প্রিয় যে, বারবার প্রেমে পড়ে যাই।
শরতের মহিমায় শুধু শিক্ষার্থীরাই মত্ত নয়, প্রাণরসায়ন ও অনুপ্রাণ বিভাগের শিক্ষিকা মাহবুবা খাতুন বলেন, শরতের কাশফুল খুবই প্রিয় আমার। প্রকৃতিতে যদি সব সময় শরৎ বিরাজ করত, তাহলে আমরা অপরূপ সুন্দর এক পৃথিবী পেতাম।
ভাষা যোগাযোগ ও সংস্কৃতি বিভাগের শিক্ষক সরোজ মেহেদী বলেন, গবি ক্যাম্পাস চিরযৌবনা, আর এ যৌবনের পরিপূর্ণতা শরতেই পাওয়া যায়।
গবি ক্যাম্পাসের সবার প্রাণে শরৎ বয়ে আনুক অনাবিল সুখ ও আনন্দ। শরতের পরিবেশের মতোই হোক সুন্দর ও পবিত্র একটি জীবন গড়ার প্রত্যয় সবার।

মো. আশিকুর রহমান

 

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..