ক্যারিয়ারের শেষ দেখছেন গার্দিওয়ালা!

ক্রীড়া ডেস্ক: কোচিং ক্যারিয়ার মাত্র আট বছরের। এর মধ্যে ক্লাব ফুটবলের সব বড় সাফল্যই ধরা দিয়েছে। বার্সেলোনাকে এনে দিয়েছিলেন স্বপ্নযুগ। কাতালুনিয়া ক্লাবটি তার হাত ধরে তিনটি লা লিগা ও দুটি চ্যাম্পিয়নস লিগ শিরোপা ঘরে তোলে। বায়ার্ন মিউনিখকে লাগাতার বুন্দেশ লিগা চ্যাম্পিয়ন করেছেন পেপ গার্দিওয়ালা। বর্তমানে এ স্প্যানিশ ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কোচ। চ্যালেঞ্জ নিয়েছেন ক্লাবটিকে ইতিহাসের নতুন অংশ করানোর। এরই মধ্যে আবার কোচ হিসেবে তার কণ্ঠে ধরা দিয়েছে বিদায়ের সুর। এনবিসি স্পোর্টসকে এক সাক্ষাৎকারে গার্দিওয়ালা বলেছেন, ক্যারিয়ারের শেষটা শুরু হয়ে গেছে।

নিজের কোচিং ক্যারিয়ার নিয়ে গার্দিওয়ালা রোববার বার্নলির বিপক্ষে ম্যাচের আগে বলেছিলেন, ‘ম্যানচেস্টার সিটিতে হয়তো তিন বছর বা এর কিছু বেশি সময় থাকব। আমি কোচ হিসেবে ক্যারিয়ারের শেষের দিকে এগোচ্ছি। এ ব্যাপারে আমি নিশ্চিত।’

এখন পর্যন্ত ক্লাব ফুটবলে কোনো দলের হয়ে তিন-চার বছরের বেশি সময় কাটাননি গার্দিওয়ালা। তবে ইচ্ছা করলে একটা দলে অনেক বছর ধরেই কোচিং করাতে পারতেন। তার সাফল্যও ছিল তেমনই। কিন্তু তাতে হয়তো তার ভালো লাগে না। বিভিন্ন দলের সঙ্গে কাজ করে হয়তো আলাদা মজা পান তিনি। সে হিসাব করলেও সিটিতেও তাকে তিন-চার বছরের বেশি সময় দেখা নাও যেতে পারে।

 

এরপরই তো ক্লাব বা জাতীয় দলের কোনোটিতে গার্দিওয়ালাকে কোচ হিসেবে দেখা যাবে না? এ নিয়ে যেমনটা বলেছেন স্প্যানিশ এই কোচ, ‘যখন কোনো ম্যাচ জিতি, অবশ্যই ভালো লাগে। হাতে এক গ্লাস ওয়াইন নিয়ে আমি সেটা উপভোগও করি। কিন্তু এ ভাবনাটাও আসে, এর পরের ধাপটাতে আরও ভালো কিছু করা যায় কি না? যদি মনে হয় সম্ভব না, তাহলে আমি আর থাকব না। সেই মুহূর্তেই মনে হবে যে আমি ক্যারিয়ারের শেষ দিকে চলে এসেছি। সত্যি বলতে, সে ভাবনাটা শুরুও হয়ে গেছে। আমার মনে হচ্ছে আমার ক্যারিয়ারের শেষের শুরু হয়ে গেছে। ৬০-৬৫ বছর বয়স পর্যন্ত আমি কোচিং করাব না।’

গার্দিওয়ালার কথাতেই স্পষ্ট হয়েছে অনেক কিছু। তাহলে তো বলা যায়, ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড থেকে কোচিং ক্যারিয়ারের ইতি টানবেন এ স্প্যানিশ কোচ।

 

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন   ❑ পড়েছেন  ৯৪১  জন  

সর্বশেষ..