সারা বাংলা

খুলনা বিভাগে ২৪ ঘণ্টায় ডেঙ্গু আক্রান্ত ৪২ জন

শেয়ার বিজ ডেস্ক: খুলনা বিভাগে গত বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা থেকে গতকাল শুক্রবার বেলা ১১টা পর্যন্ত ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়েছেন ৪২ জন। এ নিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১০ হাজার তিনজনে। এর মধ্যে ৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ পর্যন্ত আক্রান্তদের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় খুলনায় ২০ জন, যশোরে পাঁচ, কুষ্টিয়ায় পাঁচ, সাতক্ষীরায় দুজন, মাগুরায় এক, মেহেরপুরে এক ও ঝিনাইদহে দুজন মারা গেছেন। খুলনা বিভাগীয় স্বাস্থ্য অধিদফতর সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। খবর: বাংলা ট্রিবিউন।

খুলনা স্বাস্থ্য অধিদফতরের সহকারী পরিচালক (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডা. ফেরদৌসী আক্তার জানান, ১ জুলাই থেকে গতকাল পর্যন্ত বিভাগে ১০ হাজার তিনজন ডেঙ্গুরোগী শনাক্ত হয়েছে। এর মধ্যে ২১৬ জন বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। ৯ হাজার ২৭৬ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। ৫১১ জনকে বিভিন্ন স্থানে রেফার করা হয়েছে। এ পর্যন্ত আক্রান্তদের মধ্যে খুলনার বিভিন্ন হাসপাতালে ২৫৪ জন, খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে এক হাজার ৫১৬ জন, বাগেরহাটে ৩১, সাতক্ষীরায় ৮৮৫, যশোরে তিন হাজার ৫৩৮, ঝিনাইদহে ৬১৩, মাগুরায় ৫০৮, নড়াইলে ৫১৮, কুষ্টিয়ায় এক হাজার ৪৭৮, চুয়াডাঙ্গায় ১৪১ ও মেহেরপুরে ২৪৬ জন চিকিৎসা নেন।

এর মধ্যে এখন খুলনায় একজন, খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ৫৪, বাগেরহাটে তিন, সাতক্ষীরায় ১২, যশোরে ৯৪, ঝিনাইদহে ১০, মাগুরায় আট, নড়াইলে সাত, কুষ্টিয়ায় ২৩, চুয়াডাঙ্গায় এক ও মেহেরপুরে তিনজন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ডা. ফেরদৌসী আক্তার আরও জানান, বৃহস্পতিবার বেলা ১১টা থেকে গতকাল বেলা ১১টা পর্যন্ত নতুন ৪২ জন ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ১৪ জন, সাতক্ষীরায় তিন, যশোরে ১৫, ঝিনাইদহে তিন, নড়াইলে এক, কুষ্টিয়ায় চার, চুয়াডাঙ্গায় এক ও মেহেরপুরে একজন চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

ডা. ফেরদৌসী আক্তার জানান, ডেঙ্গুরোগী শনাক্তের জন্য খুলনা বিভাগে পর্যাপ্ত কিটস মজুদ রয়েছে। এ বিভাগের ১০ জেলায় ১৫ হাজার ৭০১টি কিটস মজুদ আছে। এর মধ্যে খুলনায় তিন হাজার ৫৪১টি, বাগেরহাটে ৫৮১, সাতক্ষীরায় ৪৮৯, যশোরে দুই হাজার ৯৩২, ঝিনাইদহে দুই হাজার ২৬৪, মাগুরায় ৬৭৬, নড়াইলে ৫১২, কুষ্টিয়ায় ৩৫৭, চুয়াডাঙ্গায় দুই হাজার ৫৫২ ও মেহেরপুরে এক হাজার ৭৯৭টি।

সর্বশেষ..