বিশ্ব সংবাদ

গণবিক্ষোভে পদত্যাগ করলেন লেবাননের প্রধানমন্ত্রী

শেয়ার বিজ ডেস্ক: সরকারবিরোধী আন্দোলনে সৃষ্ট সংকট মোকাবিলায় ব্যর্থ হয়ে লেবাননের প্রধানমন্ত্রী সাদ আল-হারিরি পদত্যাগের ঘোষণা দিয়েছেন। গত মঙ্গলবার টেলিভিশনে দেওয়া ভাষণে তিনি এ ঘোষণা দেন। হারিরি বলেন, দেশে অচলাবস্থা দেখা দিয়েছে। এ অবস্থায় রাজনীতিবিদদের দায়িত্ব হচ্ছে দেশকে রক্ষা করা। খবর: রয়টার্স।

গত ১৭ অক্টোবর হোয়াটসঅ্যাপ এবং একই ধরনের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপসগুলোতে কর আরোপ প্রস্তাবের প্রতিবাদ জানিয়ে বিক্ষোভ শুরু করে আন্দোলনকারীরা। এ প্রতিবাদের সঙ্গে যুক্ত হয় অর্থনৈতিক সংকট, বৈষম্য ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে মানুষের পুঞ্জীভূত ক্ষোভ। হোয়াটসঅ্যাপে কর বাতিলের আন্দোলন পরিণত হয় তীব্র সরকারবিরোধী আন্দোলনে। জনগণের ক্রয়ক্ষমতা কমে যাওয়া ও জীবনমানের অবনতির জন্য সরকারের পদত্যাগের দাবিতে তীব্র বিক্ষোভের মধ্যেই মঙ্গলবার রাতে পদত্যাগ করেন প্রধানমন্ত্রী সাদ হারিরি। এখন সাদ হারিরির পদত্যাগের পর লেবাননের আইন অনুযায়ী নতুন সরকার গঠিত না হওয়া পর্যন্ত বর্তমান মন্ত্রিসভাই দেশ পরিচালনা করবে।

সাদ হারিরি লেবাননের রাজনীতিতে সৌদি-সমর্থিত রাজনীতিক হিসেবে পরিচিত ছিলেন। তবে জোট সরকার গঠনের তাগিদে তার সরকারের শরিক হয় দেশটির ইরানসমর্থিত শিয়াপন্থি সশস্ত্র গোষ্ঠী হিজবুল্লাহ। হিজবুল্লাহর সঙ্গে তার ঘনিষ্ঠতা নিয়ে একপর্যায়ে হারিরির প্রতি ক্ষুব্ধ হয় রিয়াদ। ২০১৭ সালে নিজ দেশে ডেকে নিয়ে বিমানবন্দরেই তাকে আটক করে সৌদি কর্তৃপক্ষ। কেড়ে নেওয়া হয় তার ব্যবহার করা মোবাইল ফোন। সৌদিতে আটক অবস্থাতেই পদত্যাগের ঘোষণা দেন হারিরি। তবে রিয়াদ যে তাকে বলপূর্বক পদত্যাগের ঘোষণা দিতে বাধ্য করেছে, এটি স্পষ্ট হয়ে পড়লে ব্যাপক সমালোচনার মুখে পড়ে সৌদি আরব। একপর্যায়ে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাখোঁর তৎপরতায় মুক্ত হন হারিরি। ম্যাখোঁ নিজে সৌদি সফরে গিয়ে হারিরির লেবাননে ফেরার ব্যবস্থা করেন।

সর্বশেষ..