প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

গার্মেন্ট শ্রমিকদের জন্য দুটি হোস্টেল বানাবে শ্রম মন্ত্রণালয়

নিজস্ব প্রতিবেদক: তৈরি পোশাক শ্রমিকদের জন্য দুটি স্বতন্ত্র হোস্টেল নির্মাণ করতে যাচ্ছে শ্রম মন্ত্রণালয়। নারায়ণগঞ্জ ও চট্টগ্রামে নির্মিতব্য হোস্টেল দুটিতে এক হাজার করে শ্রমিকের আবাসিক সুবিধা হবে। শ্রম মন্ত্রণালয়ের নিজস্ব জায়গায় হোস্টেল দু’টি নির্মিত হবে। গতকাল বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে নারী উদ্যোগ কেন্দ্র আয়োজিত কর্মশালায় প্রধান অতিথি শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মো. মুজিবুল হক চুন্নু এ তথ্য জানান।

নারী উদ্যোগ কেন্দ্রের ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে ওই কর্মশালার আয়োজন করা হয়। এ সময় মন্ত্রী বলেন, শ্রমিকদের জন্য সরকার অনেক কাজ করছে। পোশাক শ্রমিকদের আবাসিক ও স্বাস্থ্যসেবাসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে ২৫ বছরে অনেক কাজ করেছে নারী উদ্যোগ কেন্দ্র। কিন্তু তারা শ্রমিকদের, বিশেষ করে নারী শ্রমিকদের অধিকার সচেতন করতে পারেনি।’ এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের আরও আন্তরিকভাবে কাজ করার আহ্বান জানান তিনি। তিনি শ্রম আইন অনুসারে সব ধরনের প্রতিষ্ঠানে শ্রমিকদের সুযোগ-সুবিধা নিশ্চিত করার আহ্বান জানান।

নারী উদ্যোগ কেন্দ্রের নির্বাহী কমিটির সভাপতি তাহিয়া খলিলের সভাপতিত্বে এতে মূল বক্তব্য উপস্থাপন করেন কেন্দ্রের নির্বাহী পরিচালক মাশহুদা খাতুন শেফালী। তিনি বলেন, গার্মেন্ট শ্রমিকদের আগে মন্দ দৃষ্টিতে দেখা হতো। এখনও গ্রামগঞ্জে গার্মেন্টে কর্মরত নারী শ্রমিকদের নানা সমস্যা মোকাবিলা করতে হচ্ছে। এ নিয়ে সরকার ও মালিকরা আন্তরিক নয় বলেও তিনি অভিযোগ করেন। তিনি বলেন, ‘সরকার ও মালিকরা সবসময় গার্মেন্ট শিল্পের উন্নয়নে কাজ করেছেন। কিন্তু শ্রমিকদের উন্নয়নের দিকে তারা মনোযোগ দেননি।’

এ সময় তিনি নারী উদ্যোগ কেন্দ্রের বিভিন্ন কার্যক্রম তুলে ধরে বলেন, ‘কমপ্লায়েন্সের গুরুত্বের কথা আমরা ১৯৯১ সাল থেকেই বলে আসছি।’

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বিটিইউকের কো-অর্ডিনেটর ড. ওয়াজেদুল ইসলাম খান, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. নাসিম আখতার হোসাইন, বিআইডিএসের সাবেক গবেষক প্রতিমা পাল মজুমদার, কানাডিয়ান হাইকমিশনের উন্নয়ন পরামর্শক সিলভিয়া ইসলাম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।