সুস্বাস্থ্য

গুগল ডুডলে হাত ধোয়ার বার্তা

বিভিন্ন দিবস, উৎসব, বিখ্যাত ব্যক্তি কিংবা ঘটনাসহ নানা আয়োজনে ডুডল তৈরি করে গুগল। এখন করোনা প্রতিরোধে প্রতিষ্ঠানটি ডুডলে সঠিকভাবে হাত ধোয়ার নিয়ম-কানুন তুলে ধরছে।

জীবাণু ছড়ানো ঠেকাতে কীভাবে হাত ধুতে হবে, অ্যানিমেটেড ডুডলে তা তুলে ধরেছে গুগল। এখানে ছয়টি ধাপে হাত ধোয়ার সঠিক নিয়ম দেখানো হয়েছে।

নিয়ম মেনে হাত ধোয়ার অভ্যাস তৈরির প্রথম প্রস্তাব দেন জার্মান-হাঙ্গেরিয় চিকিৎসক ও বিজ্ঞানী ড. ইগনাজ ফিলিপ সেমেলওয়েস। হাত ধুলে যে জীবাণু নাশ হয়, তা বুঝেছিলেন তিনি। তিনি তাই প্রচার করেন, হাত থেকেই সব ধরনের জীবাণু ছড়ায়। বারবার হাত ধুতে বলেছিলেন তিনি। এতে তাৎক্ষণিক উপকৃত হয়েছিল অস্ট্রিয়া, জার্মানিসহ পূর্ব ইউরোপের দেশগুলো। অ্যান্টিসেপটিক তৈরির অগ্রদূতও বলা হয় ইগনাজকে।

ইগনাজ ১৮৪৭ সালে অস্ট্রিয়ার ভিয়েনা জেনারেল হসপিটালে স্টাফদের হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করেন। অল্প সময়ের মধ্যে হাত ধোয়ার বিষয়টি প্রাতিষ্ঠানিকভাবে রপ্ত করাতে পারেন তিনি। ফলে ওই বছরের এপ্রিলে ক্লিনিকে যেখানে মৃত্যুহার ছিল ১৮ দশমিক তিন শতাংশ, জুনে তা নেমে আসে দুই দশমিক দুই শতাংশে। জুলাইয়ে এ হার ছিল এক দশমিক দুই শতাংশ। তাই শুক্রবার থেকে সঠিক নিয়মে হাত ধোয়ার পাশাপাশি তাকেও সম্মান জানাচ্ছে প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান গুগল।

প্রিন্ট করুন প্রিন্ট করুন

সর্বশেষ..