দিনের খবর

গুলশান বনানী ধানমণ্ডির অবৈধ স্থাপনা সরানো নির্দেশ

ঢাকা মহানগরীর অভিজাত গুলশান, বনানী ও ধানমণ্ডি এলাকার আবাসিক প্লট থেকে সব অননুমোদিত বাণিজ্যিক ভবন ও অবৈধ স্থাপনা সরিয়ে নিতে হবে। তবে এজন্য ১০ মাস সময় দিয়েছেন হাই কোর্ট। গতবছর দেওয়া রুলের ওপর শুনানি করে বিচারপতি সালমা মাসুদ চৌধুরী ও বিচারপতি এ কে এম জহিরুল হকের হাই কোর্টে বেঞ্চ আজ বুধবার এই রায় দেন।

অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে রাজউকের অভিযানের প্রেক্ষাপটে ২৩৩টি রিট আবেদন একসঙ্গে নিষ্পত্তি করে হাই কোর্ট এই রায় দেওয়া হলো। আদালতে রাজউকের পক্ষে শুনানি করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম।

অন্যদিকে রিটকারীদের পক্ষে ছিলেন এ বি এম আলতাফ হোসেন, অ্যাডভোকেট ইদ্রিসুর রহমান, আসিফ আলী খান ও অ্যাডভোকেট মনিরুজ্জামান।

রায়ের পর এ বি এম আলতাফ হোসেন বলেন, গুলশান, বনানী ও ধানমন্ডি এলাকার আবাসিক প্লট থেকে সব অননুমোদিত বাণিজ্যিক ও অবৈধ স্থাপনা দশ মাসের মধ্যে সরিয়ে নিতে বলেছে আদালত।

এই দশ মাসের মধ্যে ওইসব স্থাপনায় রাজউক বা কোনো সেবা সংস্থা কোনো ধরনের উচ্ছেদ অভিযান চালাতে পারবে না বা গ্যাস, বিদ্যুৎ, পানি সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা যাবে না।

দশ মাসের মধ্যে মালিকরা স্থাপনা সরিয়ে না নিলে রাজউক নোটিস ছাড়াই সেখানে উচ্ছেদ অভিযান চালাতে পারবে।

তবে রিটকারী পক্ষের আরেক আইনজীবী ব্যারিস্টার আবদুল কাইয়ুম বলছেন, এই দশ মাসের মধ্যে বাণিজ্যিক স্থাপনার মালিকরা রাজউকের অনুমোদন নিতে ব্যর্থ হলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে বলেছে আদালত।

সর্বশেষ..